ভারতে ধুলো ঝড়ে ধুলায় মিশল দুই প্রদেশ : নিহত ৯৫

  যুগান্তর ডেস্ক ০৪ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ধুলো ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে ভারতের উত্তর প্রদেশ, রাজস্থান। ধুলোই মিশে গেছে দুই প্রদেশের জনপদ। বৃহস্পতিবার রাতভর টানা ঝড়ের দাপটে গাছপালা, ঘরবাড়ি ভেঙে নিহত হয়েছে ৯৫ জন। আহত ১৪৩ জন। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। খবর এএফপির।

বুধবার বিকেল থেকে আকাশে কালো মেঘ দেখা দেয়। অল্পবিস্তর বৃষ্টির আশঙ্কা দেখা দিয়েছিল। কিন্তু এত তীব্র গতিতে ঝড় ধেয়ে আসবে ভাবতে পারেননি দুই রাজ্যের বাসিন্দারা। ঝড়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উত্তর প্রদেশের আগ্রা। ভোর তিনটা পর্যন্ত চলেছে দুর্যোগ। শুধু উত্তর প্রদেশে কমপক্ষে ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। শুধু আগ্রাতেই ৪৩ জন। সব মিলিয়ে ৭৫ জেলাজুড়ে আহত হয়েছেন ৪১ জন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সরেজমিন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে টুইট করেছেন। ঝড়ে মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি। আহতদের আরোগ্য কামনা করেছেন। ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

ধুলো ঝড়ে রাজস্থানে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ৩১ জনের। আহত ১০২ জন। বুধবার রাতে এই ঝড়ের প্রভাব দেখা

যায় রাজস্থানের পূর্বাঞ্চলে। আলওয়ার, ঢোলপুর এবং ভরতপুর জেলায় এই ধুলো ঝড়ের প্রভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়, বহু গাছ ও বাড়ি ভেঙে পড়ে। রাজস্থান সরকারের আশঙ্কা, মৃত্যুর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। দিল্লি থেকে ১৬৪ কিমি. দূরে অবস্থিত আলওয়ারে বুধবার রাতে কোনো বিদ্যুৎ সংযোগ ছিল না।

ঝড়ের জন্য গাছ ভেঙে পড়ে বিদ্যুতের খুঁটির ওপর। ফলে গোটা এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ চলে যায়। ভরতপুর জেলায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এই জেলা থেকে ১১ জন মারা গিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে সব প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন আহতদের সব ধরনের সহায়তা করার জন্য। বৃহস্পতিবার সকালে মুখ্যমন্ত্রী টুইট করে বলেন, ‘ঝড়ের জন্য আলওয়ার, ভরতপুর এবং ঢোলপুর ক্ষতিগ্রস্ত। আমি তিন জেলাতেই নির্দেশ দিয়েছি আহতদের সব ধরনের সম্ভাব্য সহায়তা করতে। এই দুর্যোগে যাদের প্রাণ গিয়েছে, সেইসব পরিবারের প্রতি আমার গভীর সমবেদনা রইল।’ আবহাওয়া দফতর আগেই এই প্রাকৃতিক দুর্যোগের আভাস দিয়েছিল।

রাজস্থানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এবং কংগ্রেস নেতা অশোক গেহলোট মৃতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তার জন্মদিনের উৎসব পালন করবেন না। বুধবার সন্ধ্যায় ধুলোর ঝড়ের সঙ্গে প্রচণ্ড বৃষ্টি হয় দিল্লিতেও। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছিল, বুধবার বিকেল ৪টা ৪৫ নাগাদ ঘণ্টায় ৫৯ কিমি. বেগে ঝড় আসবে। তবে ঝড়ের প্রকট খুব অল্প সময়ের জন্যই ছিল বলে জানা গিয়েছে। খারাপ আবহাওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক বিমানসহ ১৫টি বিমান দিল্লি বিমানবন্দর থেকে সরিয়ে অন্যত্র অবতরণ করানো হয়। রাজস্থানে এদিন সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা ছিল বলে জানা গিয়েছে। ৪৫.?৫ ডিগ্রি তাপমাত্রা ছিল বলে আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে।

pran
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter