রমজানে সাংগঠনিক কার্যক্রম চালাবে বিএনপি

ঢাকা মহানগর ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ * মনোনয়নপ্রত্যাশীদের এলাকায় থাকার নির্দেশ

  তারিকুল ইসলাম ০৬ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রমজান মাসকে কেন্দ্র করে সাংগঠনিক কার্যক্রম চালাবে বিএনপি। রমজানকে সাংগঠনিক মাস হিসেবে ঘোষণা করে জেলা শাখাগুলো ঢেলে সাজাতে চায় দলটি। এ ক্ষেত্রে ঢাকা মহানগরকে বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। রমজানের মধ্যেই ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের পূর্ণাঙ্গ এবং ওয়ার্ড ও থানাগুলোয় নতুন কমিটি করতে কেন্দ্র থেকে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে জাতীয় নির্বাচনে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নিজ এলাকায় অবস্থান করার ব্যাপারেও নির্দেশনা যাচ্ছে। ইফতার পার্টিসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পরিচালনার মধ্য দিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। বিএনপির নীতিনির্ধারণী সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী যুগান্তরকে জানান, প্রতিবছরের মতো এবারও দলের পক্ষ থেকে ইফতার পার্টির আয়োজন থাকবে। পাশাপাশি সাংগঠনিক কার্যক্রম চলবে। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কর্মসূচিও দেয়া হবে।

স্থায়ী কমিটির এক সদস্য যুগান্তরকে জানান, মূলত তারা কঠোর আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এর অংশ হিসেবে রমজান মাসকে কেন্দ্র করে দলকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, শুক্রবারের যৌথসভায় দলের কেন্দ্রীয় নেতারা বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আন্দোলন আরও জোরদারের কথা বলেছেন। রমজান মাসে বড় ধরনের কর্মসূচি হয়তো থাকবে না। তাই এ সময়কে কাজে লাগাতে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রমের দিকে মনোযোগ দেবে বিএনপি। সাংগঠনিকভাবে দলকে আরও শক্তিশালী করে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

সূত্র জানায়, বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয় গুলশানে শুক্রবারের যৌথসভায় দলের ভবিষ্যৎ কর্মকৌশল নিয়ে আলোচনা হয়। সেখানে রমজানকে সাংগঠনিক মাস হিসেবে ঘোষণার কথা বলেন কেন্দ্রীয় নেতারা। বিষয়টি নিয়ে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যরা হাইকমান্ডের সঙ্গে আলোচনা করেন। বিএনপির এক কেন্দ্রীয় নেতা জানান, রমজানে বড় ধরনের কোনো কর্মসূচি দেয়ার পরিকল্পনা নেই তাদের। সাংগঠনিক কার্যক্রমের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবেন। সাংগঠনিকভাবে দলকে আরও শক্তিশালী করতে চান তারা। এ জন্য ৭৮টি জেলা শাখার মধ্যে যেখানে পূর্ণাঙ্গ কমিটি নেই তার একটি তালিকা করা হবে। আবার কোন জেলার কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে এবং আহ্বায়ক কমিটি আছে কিনা তা-ও একই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এই তালিকা ধরে যেসব জেলা কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ সেখানে নতুন কমিটি এবং সব জেলায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

সূত্র জানায়, শুক্রবারের যৌথসভায় বেশ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা চূড়ান্ত আন্দোলনের আগে ঢাকা মহানগরকে ঢেলে সাজানোর ওপর জোর দেন। তারা বলেন, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কমিটির মেয়াদ এক বছর পার হলেও এখনও পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে পারেনি। ওয়ার্ড ও থানা কমিটির অবস্থা আরও খারাপ। এমনও থানা আছে পনেরো বছর ধরে এক কমিটি দিয়ে চলছে। দলের স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য জানান, ঢাকা মহানগরীকে ঢেলে সাজানোর জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। রমজানের মধ্যেই উত্তর ও দক্ষিণের পূর্ণাঙ্গ কমিটি এবং ওয়ার্ড ও থানাগুলোয় নতুন কমিটি করার কথা বলা হয়েছে। এদিকে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে থাকায় এ বছর কেন্দ্রীয়ভাবে বেশি ইফতার পার্টি করার পরিকল্পনা নেই বিএনপির। সূত্র জানায়, শুধু এতিম ও দুস্থ, কূটনীতিক, রাজনৈতিক দল ও সাংবাদিকদের সম্মানে ইফতার পার্টি করবে দলটি। এ ছাড়া অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলো যে যার মতো ইফতার পার্টির আয়োজন করবে। তবে অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর ক্ষেত্রে বলা হয়েছে, প্রতিবছরের মতো এবার শুধু ইফতার পার্টি হবে না। ইফতার পার্টির আগে সেখানে একটি কর্মিসভা করা হবে। এ ছাড়া জাতীয় নির্বাচনে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের রমজান মাসে নিজ এলাকায় অবস্থান করার নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে। চলতি সপ্তাহে কেন্দ্র থেকে এমন নির্দেশনার কথা মনোনয়নপ্রত্যাশীদের জানানো হবে। সূত্র জানায়, ইফতার পার্টিসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পরিচালনার মধ্য দিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। দলের এক কেন্দ্রীয় নেতা জানান, জাতীয় নির্বাচনের সময় আর বেশি নেই। ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীরা ইতিমধ্যে মাঠেও নেমে পড়েছেন। এসব মাথায় রেখেই মূলত বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নিজ এলাকায় অবস্থান করতে নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে। যদিও দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছাড়া জাতীয় নির্বাচনে না যাওয়ার ব্যাপারে এখন পর্যন্ত দলের সিদ্ধান্ত রয়েছে বলেও তিনি জানান। এ ব্যাপারে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল যুগান্তরকে বলেন, রমজান মাসকে ঘিরে বিএনপির ব্যাপক পরিকল্পনা রয়েছে। সব জেলা শাখায় সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। একই সঙ্গে জাতীয় নির্বাচনে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের নিজ এলাকায় অবস্থান করার নির্দেশনাও থাকবে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.