সাম্প্রদায়িক অপশক্তির ঠিকানা বিএনপি: সেতুমন্ত্রী
jugantor
সাম্প্রদায়িক অপশক্তির ঠিকানা বিএনপি: সেতুমন্ত্রী

  ঢাবি প্রতিনিধি  

১৫ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশের সব সাম্প্রদায়িক এবং উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা হচ্ছে বিএনপি।

বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা বিশবিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ বিভিন্ন হল ছাত্রলীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি এবং তাদের দোষররা হিন্দু সম্প্রদায়ের দুর্গাপূজার সময় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা সৃষ্টি করে দেশে শান্তি বিনষ্টের পাঁয়তারা চালাচ্ছে। এ মহলটি কারা, কারা এদের পৃষ্ঠপোষক তাদের আমরা চিনি।

বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় সাম্প্রদায়িক শক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। তারা দুঃসাহস দেখাচ্ছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গত ১২ বছর শেখ হাসিনা সরকারের আমলে দেশের কোনো পূজামণ্ডপে সহিংস ঘটনা ঘটেনি। অথচ এবার কুমিল্লাসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় নিন্দনীয় ঘটনা ঘটে গেছে।

এর তদন্ত চলছে। যারা সাম্প্রদায়িক সহিংসতা সৃষ্টি করেছে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর। আজ শুক্রবার বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় এ উৎসব। এদিনও ষড়যন্ত্র হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছাত্রলীগ নেতাদের সতর্ক থাকার নির্দেশনা দিয়ে তিনি বলেন, আগামীকাল বিসর্জনের দিনেও ষড়যন্ত্র থাকতে পারে। সরকারের পাশাপাশি নেতাকর্মীদের বলব, বিসর্জনের দিন আপনাদের সতর্ক পাহারায় থাকতে হবে। কারণ এই অপশক্তি এবং তাদের পৃষ্ঠপোষক বিএনপি নির্বাচনে ও আন্দোলনে হেরে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য ষড়যন্ত্রের চোরাগলি বেছে নিয়েছে।

তারা বাংলাদেশের স্থিতি এবং শান্তি নষ্ট করতে চায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কাউকে বিশৃঙ্খলা করতে দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ার করে দেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এই ক্যাম্পাসে শান্তি এবং সাম্প্রাদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের জন্য অশুভ মহল চক্রান্ত করছে। এরা বিশৃঙ্খলা করবে। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের দায়িত্ব অনেক। এ দায়িত্ব দায়িত্বশীলতার সঙ্গে পালন করতে হবে।

রামকৃষ্ণ মিশন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন : এদিন রাজধানীর গোপীবাগে রামকৃষ্ণ মিশন পূজামণ্ডপও পরিদর্শন করেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় তিনি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক উসকানি দিয়ে’ যারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে, তাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, সারা দেশে প্রতিটি পূজামণ্ডপে শান্তিপূর্ণভাবে পূজা হচ্ছে বলে যাদের গাত্রদাহ, তারা দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়।

তাদের অপকৌশলের একটি হচ্ছে হিন্দু-মুসলমানের বৈরিতা সৃষ্টি করা। এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, কুমিল্লার ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটতে পারে সেজন্য নেতাকর্মীদের আরও বেশি সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

সাম্প্রদায়িক অপশক্তির ঠিকানা বিএনপি: সেতুমন্ত্রী

 ঢাবি প্রতিনিধি 
১৫ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশের সব সাম্প্রদায়িক এবং উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা হচ্ছে বিএনপি।

বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা বিশবিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ বিভিন্ন হল ছাত্রলীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি এবং তাদের দোষররা হিন্দু সম্প্রদায়ের দুর্গাপূজার সময় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা সৃষ্টি করে দেশে শান্তি বিনষ্টের পাঁয়তারা চালাচ্ছে। এ মহলটি কারা, কারা এদের পৃষ্ঠপোষক তাদের আমরা চিনি।

বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় সাম্প্রদায়িক শক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। তারা দুঃসাহস দেখাচ্ছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গত ১২ বছর শেখ হাসিনা সরকারের আমলে দেশের কোনো পূজামণ্ডপে সহিংস ঘটনা ঘটেনি। অথচ এবার কুমিল্লাসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় নিন্দনীয় ঘটনা ঘটে গেছে।

এর তদন্ত চলছে। যারা সাম্প্রদায়িক সহিংসতা সৃষ্টি করেছে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর। আজ শুক্রবার বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় এ উৎসব। এদিনও ষড়যন্ত্র হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছাত্রলীগ নেতাদের সতর্ক থাকার নির্দেশনা দিয়ে তিনি বলেন, আগামীকাল বিসর্জনের দিনেও ষড়যন্ত্র থাকতে পারে। সরকারের পাশাপাশি নেতাকর্মীদের বলব, বিসর্জনের দিন আপনাদের সতর্ক পাহারায় থাকতে হবে। কারণ এই অপশক্তি এবং তাদের পৃষ্ঠপোষক বিএনপি নির্বাচনে ও আন্দোলনে হেরে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য ষড়যন্ত্রের চোরাগলি বেছে নিয়েছে।

তারা বাংলাদেশের স্থিতি এবং শান্তি নষ্ট করতে চায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কাউকে বিশৃঙ্খলা করতে দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ার করে দেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এই ক্যাম্পাসে শান্তি এবং সাম্প্রাদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের জন্য অশুভ মহল চক্রান্ত করছে। এরা বিশৃঙ্খলা করবে। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের দায়িত্ব অনেক। এ দায়িত্ব দায়িত্বশীলতার সঙ্গে পালন করতে হবে।

রামকৃষ্ণ মিশন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন : এদিন রাজধানীর গোপীবাগে রামকৃষ্ণ মিশন পূজামণ্ডপও পরিদর্শন করেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় তিনি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক উসকানি দিয়ে’ যারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে, তাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, সারা দেশে প্রতিটি পূজামণ্ডপে শান্তিপূর্ণভাবে পূজা হচ্ছে বলে যাদের গাত্রদাহ, তারা দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়।

তাদের অপকৌশলের একটি হচ্ছে হিন্দু-মুসলমানের বৈরিতা সৃষ্টি করা। এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, কুমিল্লার ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটতে পারে সেজন্য নেতাকর্মীদের আরও বেশি সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন