সিলেটে ছাত্রলীগ কর্মী হাবিব খুনের ১১ আসামিই খালাস
jugantor
সিলেটে ছাত্রলীগ কর্মী হাবিব খুনের ১১ আসামিই খালাস

  সিলেট ব্যুরো  

২২ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র ও ছাত্রলীগ কর্মী কাজী হাবিবুর রহমান হাবিব হত্যা মামলার ১১ আসামিই খালাস পেয়েছেন।

অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুমিনুন নেসা বৃহস্পতিবার এ রায় দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে পাবলিক প্রসিকিউটর জুবায়ের জানান, মামলার ১১ আসামির মধ্যে ৮ জন আদালতে হাজির ছিলেন। বাকি ৩ জন পলাতক। আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাদের খালাস দিয়েছেন।

খালাসপ্রাপ্তরা হলেন-হোসাইন মোহাম্মদ সাগর, ইলিয়াছ আহমদ পুনম, ইমরান খান, সুবায়ের আহমদ সুহেল, ময়নুল ইসলাম রুমেল, তুহিন আহমদ, নাহিদ হাসান, আওয়াল আহমদ সোহান, আশিক, সায়মন ও নয়ন। এদের মধ্যে হোসাইন মোহাম্মদ সাগরকে কয়েক দিন আগে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৯ জানুয়ারি ইউনিভার্সিটির ফটকে হামলার শিকার হাবিবুরকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওই দিন রাতেই মারা যান তিনি। এ ঘটনায় হাবিবের ভাই কাজী জাকির হোসেন কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন।

সিলেটে ছাত্রলীগ কর্মী হাবিব খুনের ১১ আসামিই খালাস

 সিলেট ব্যুরো 
২২ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র ও ছাত্রলীগ কর্মী কাজী হাবিবুর রহমান হাবিব হত্যা মামলার ১১ আসামিই খালাস পেয়েছেন।

অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুমিনুন নেসা বৃহস্পতিবার এ রায় দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে পাবলিক প্রসিকিউটর জুবায়ের জানান, মামলার ১১ আসামির মধ্যে ৮ জন আদালতে হাজির ছিলেন। বাকি ৩ জন পলাতক। আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাদের খালাস দিয়েছেন।

খালাসপ্রাপ্তরা হলেন-হোসাইন মোহাম্মদ সাগর, ইলিয়াছ আহমদ পুনম, ইমরান খান, সুবায়ের আহমদ সুহেল, ময়নুল ইসলাম রুমেল, তুহিন আহমদ, নাহিদ হাসান, আওয়াল আহমদ সোহান, আশিক, সায়মন ও নয়ন। এদের মধ্যে হোসাইন মোহাম্মদ সাগরকে কয়েক দিন আগে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৯ জানুয়ারি ইউনিভার্সিটির ফটকে হামলার শিকার হাবিবুরকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওই দিন রাতেই মারা যান তিনি। এ ঘটনায় হাবিবের ভাই কাজী জাকির হোসেন কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন