মেক্সিকোয় ৩৭ বাংলাদেশিসহ ৬শ অভিবাসনপ্রত্যাশী উদ্ধার
jugantor
মেক্সিকোয় ৩৭ বাংলাদেশিসহ ৬শ অভিবাসনপ্রত্যাশী উদ্ধার

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ নভেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মেক্সিকোর পূর্বাঞ্চল থেকে দুটি ট্রাকের পেছনে লুকানো অবস্থায় ১২টি দেশের ৬০০ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩৭ বাংলাদেশিও রয়েছেন। স্থানীয় সময় গত শুক্রবার এই অভিবাসনপ্রত্যাশীদের উদ্ধার করা হয়। বিষয়টি শনিবার নিশ্চিত করেছে মেক্সিকোর ন্যাশনাল মাইগ্রেশন ইনস্টিটিউট (আইএনএম)। খবর রয়টার্স ও এএফপি।

মেক্সিকোর দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ভেরাক্রুজ যাওয়ার পথে তাদের উদ্ধার করা হয়। দুটি ট্রাক্টর-ট্রেলারে করে যাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছে মানবাধিকারের কমিশনের প্রধান টোনাটিউহ হার্নান্দেজ।

আইএনএমের তথ্য অনুযায়ী, অভিবাসনপ্রত্যাশীদের বেশির ভাগই প্রতিবেশী গুয়াতেমালার অধিবাসী। তাদের সংখ্যা ৪০১। বাকিদের মধ্যে হন্ডুরাসের ৫৩ জন, ডমিনিকান রিপাবলিকের ৪০, বাংলাদেশের ৩৭, নিকারাগুয়ার ২৭, এল সালভাদরের ১৮ ও কিউবার ৮ জন। এছাড়াও ঘানার ৬ জন, ভেনেজুয়েলার ৪, ইকুয়েডরের ৪, ভারতের ১ ও ক্যামেরনের ১ জন। উদ্ধার হওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মধ্যে ৪৫৫ জন পুরুষ ও ১৪৫ জন নারী।

আইএনএম জানিয়েছে, অভিবাসনপ্রত্যাশীদের আপাতত আটক করা হয়েছে। এখন হয় তাদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে, নয়তো তাদের মেক্সিকোয় থাকার সুযোগ দেওয়া হবে।

বিভিন্ন সময় বিশ্বের নানান দেশ থেকে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মেক্সিকো হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষ্টা করতে দেখা গেছে। এই অভিবাসনপ্রত্যাশীরা বলেছেন, তারা নিজ দেশে দারিদ্র্য বা সহিংসতা থেকে বাঁচতে এই পথ বেছে নিয়েছেন। ২০২০ সালের অক্টোবর থেকে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রায় ১ দশমিক ৭ মিলিয়ন লোক মেক্সিকো থেকে অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছেন, যা এ সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ।

মেক্সিকোয় ৩৭ বাংলাদেশিসহ ৬শ অভিবাসনপ্রত্যাশী উদ্ধার

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ নভেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মেক্সিকোর পূর্বাঞ্চল থেকে দুটি ট্রাকের পেছনে লুকানো অবস্থায় ১২টি দেশের ৬০০ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩৭ বাংলাদেশিও রয়েছেন। স্থানীয় সময় গত শুক্রবার এই অভিবাসনপ্রত্যাশীদের উদ্ধার করা হয়। বিষয়টি শনিবার নিশ্চিত করেছে মেক্সিকোর ন্যাশনাল মাইগ্রেশন ইনস্টিটিউট (আইএনএম)। খবর রয়টার্স ও এএফপি।

মেক্সিকোর দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ভেরাক্রুজ যাওয়ার পথে তাদের উদ্ধার করা হয়। দুটি ট্রাক্টর-ট্রেলারে করে যাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছে মানবাধিকারের কমিশনের প্রধান টোনাটিউহ হার্নান্দেজ।

আইএনএমের তথ্য অনুযায়ী, অভিবাসনপ্রত্যাশীদের বেশির ভাগই প্রতিবেশী গুয়াতেমালার অধিবাসী। তাদের সংখ্যা ৪০১। বাকিদের মধ্যে হন্ডুরাসের ৫৩ জন, ডমিনিকান রিপাবলিকের ৪০, বাংলাদেশের ৩৭, নিকারাগুয়ার ২৭, এল সালভাদরের ১৮ ও কিউবার ৮ জন। এছাড়াও ঘানার ৬ জন, ভেনেজুয়েলার ৪, ইকুয়েডরের ৪, ভারতের ১ ও ক্যামেরনের ১ জন। উদ্ধার হওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মধ্যে ৪৫৫ জন পুরুষ ও ১৪৫ জন নারী।

আইএনএম জানিয়েছে, অভিবাসনপ্রত্যাশীদের আপাতত আটক করা হয়েছে। এখন হয় তাদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে, নয়তো তাদের মেক্সিকোয় থাকার সুযোগ দেওয়া হবে।

বিভিন্ন সময় বিশ্বের নানান দেশ থেকে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মেক্সিকো হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষ্টা করতে দেখা গেছে। এই অভিবাসনপ্রত্যাশীরা বলেছেন, তারা নিজ দেশে দারিদ্র্য বা সহিংসতা থেকে বাঁচতে এই পথ বেছে নিয়েছেন। ২০২০ সালের অক্টোবর থেকে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রায় ১ দশমিক ৭ মিলিয়ন লোক মেক্সিকো থেকে অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছেন, যা এ সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন