ইউএইর ‘গোল্ডেন জুবিলি’তে হলিউড বলিউডের ৫০ তারকা
jugantor
ইউএইর ‘গোল্ডেন জুবিলি’তে হলিউড বলিউডের ৫০ তারকা

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩০ নভেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জমকালো আয়োজনে উদ্যাপিত হচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) ‘গোল্ডেন জুবিলি’। এ উপলক্ষ্যে দেশটিতে সমাবেত হয়েছে হলিউড, বলিউডের বিখ্যাত ৫০ তারকা।

তাদের মধ্যে রয়েছেন শাহরুখ খান, লিন্ডসে লোহান, জেকি চ্যান, উইল স্মিথ, এআর রহমান, সঞ্জয় দত্ত, প্যারিস হিল্টন, প্রিয়াংকা চোপড়া জোনাস, সোনম কাপুর, কিম কার্দাশিয়ান ওয়েস্ট, তুষার কাপুর, সুইস টেনিস তারকা রজার ফেডারার, ব্রিটিশ বক্সার আমির খান, মিসরীয় র‌্যাপার মোহাম্মদ রমাদান, কে-পপ ব্যান্ড দল বিটিএস, এমএমএ ফাইটার খাবিব নুরগামোমেদভ, ব্রিটিশ র‌্যাপার স্টর্মজি, গায়ক ইউসুফ ইসলাম, লেবাননের গায়িকা ন্যান্সি আজরাম, গেয়ানেথ পালট্রো, কেইট হাডসন, জো সালদানা, ব্রিটিশ কৌতুকাভিনেতা জ্যাক হোয়াইটহল, জাদা পিনকেট স্মিথ, কানাডীয় র‌্যাপার ড্রেক, ইতরপ্রিনার হুদা কাত্তান, জং সো-ইয়ন, ইতালিয়ান ডিজাইনার জিওরজিও আর্মানি, সুনীল শেঠী, কব্রা সেইথ, জামাইকার উসেন বল্ট, মিসরীয় নেলি করিম প্রমুখ। দেশটি সম্পর্কে তারকাদের অভিমত, সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই যে বিত্তবান ও খ্যাতিমানদের জন্য ইউএই সবচেয়ে আকর্ষণীয় স্থান। কোনো কাজে বা খেলাধুলার জন্য হলেও কেউ না কেউ দেশটিতে থাকেন। অর্থাৎ দেশটি কখনো তারকা শূন্য থাকে না। তারকারা আরব আমিরাতের প্রশংসা করতেও দ্বিধা করেন না।

শাহরুখ খান দুবাই পর্যটন প্রচারণা ‘বি মাই গেস্ট’-এর একজন পরিচিত মুখ। তিনি বলেন, ‘এই শহরটি যেভাবে আছে আমি সেভাবেই সেটিকে ভালোবাসি। এখানে প্রত্যেকের জন্যই কিছু না কিছু আছে।’ লিন্ডসে লোহান বলেন, ‘আমি ২০০৮ সালে যখন প্রথম আসি তখন আটলান্টিস হোটেল ভবনের কাজ শেষ হয়েছে। এখন এখানে যা কিছু আছে, তখন তার কিছুই ছিল না। যেমন ডিআইএফসি, ডাউনটাউন, দুবাই মল... এরকম অনেক কিছুই ছিল না।’ লন্ডনের পর লোহান এখন দুবাইতেই থাকেন। দুবাই ম্যারিনার লে রেভ টাওয়ারে রজার ফেদেরার একটি অ্যাপার্টমেন্ট আছে। তিনি বলেন, তার জন্য এটি একটি ভালো লোকেশন। বিশেষ করে টেনিস চর্চার জন্য। সঞ্জয় দত্ত আরব আমিরাতের ‘গোল্ডেন ভিসা’ পেয়েছেন বলে টুইটারে লিখেছেন। প্রিয়াংকা চোপড়া জোনাস সাংবাদিকদের অনুষ্ঠান, প্রিমিয়ার এবং ছুটি কাটাতে চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু করার আগে থেকেই দুবাই ও আশপাশের এলাকায় অনেক বার গেছেন। এভাবে সব তারকাই দেশটির প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

ইউএইর ‘গোল্ডেন জুবিলি’তে হলিউড বলিউডের ৫০ তারকা

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

জমকালো আয়োজনে উদ্যাপিত হচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) ‘গোল্ডেন জুবিলি’। এ উপলক্ষ্যে দেশটিতে সমাবেত হয়েছে হলিউড, বলিউডের বিখ্যাত ৫০ তারকা।

তাদের মধ্যে রয়েছেন শাহরুখ খান, লিন্ডসে লোহান, জেকি চ্যান, উইল স্মিথ, এআর রহমান, সঞ্জয় দত্ত, প্যারিস হিল্টন, প্রিয়াংকা চোপড়া জোনাস, সোনম কাপুর, কিম কার্দাশিয়ান ওয়েস্ট, তুষার কাপুর, সুইস টেনিস তারকা রজার ফেডারার, ব্রিটিশ বক্সার আমির খান, মিসরীয় র‌্যাপার মোহাম্মদ রমাদান, কে-পপ ব্যান্ড দল বিটিএস, এমএমএ ফাইটার খাবিব নুরগামোমেদভ, ব্রিটিশ র‌্যাপার স্টর্মজি, গায়ক ইউসুফ ইসলাম, লেবাননের গায়িকা ন্যান্সি আজরাম, গেয়ানেথ পালট্রো, কেইট হাডসন, জো সালদানা, ব্রিটিশ কৌতুকাভিনেতা জ্যাক হোয়াইটহল, জাদা পিনকেট স্মিথ, কানাডীয় র‌্যাপার ড্রেক, ইতরপ্রিনার হুদা কাত্তান, জং সো-ইয়ন, ইতালিয়ান ডিজাইনার জিওরজিও আর্মানি, সুনীল শেঠী, কব্রা সেইথ, জামাইকার উসেন বল্ট, মিসরীয় নেলি করিম প্রমুখ। দেশটি সম্পর্কে তারকাদের অভিমত, সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই যে বিত্তবান ও খ্যাতিমানদের জন্য ইউএই সবচেয়ে আকর্ষণীয় স্থান। কোনো কাজে বা খেলাধুলার জন্য হলেও কেউ না কেউ দেশটিতে থাকেন। অর্থাৎ দেশটি কখনো তারকা শূন্য থাকে না। তারকারা আরব আমিরাতের প্রশংসা করতেও দ্বিধা করেন না।

শাহরুখ খান দুবাই পর্যটন প্রচারণা ‘বি মাই গেস্ট’-এর একজন পরিচিত মুখ। তিনি বলেন, ‘এই শহরটি যেভাবে আছে আমি সেভাবেই সেটিকে ভালোবাসি। এখানে প্রত্যেকের জন্যই কিছু না কিছু আছে।’ লিন্ডসে লোহান বলেন, ‘আমি ২০০৮ সালে যখন প্রথম আসি তখন আটলান্টিস হোটেল ভবনের কাজ শেষ হয়েছে। এখন এখানে যা কিছু আছে, তখন তার কিছুই ছিল না। যেমন ডিআইএফসি, ডাউনটাউন, দুবাই মল... এরকম অনেক কিছুই ছিল না।’ লন্ডনের পর লোহান এখন দুবাইতেই থাকেন। দুবাই ম্যারিনার লে রেভ টাওয়ারে রজার ফেদেরার একটি অ্যাপার্টমেন্ট আছে। তিনি বলেন, তার জন্য এটি একটি ভালো লোকেশন। বিশেষ করে টেনিস চর্চার জন্য। সঞ্জয় দত্ত আরব আমিরাতের ‘গোল্ডেন ভিসা’ পেয়েছেন বলে টুইটারে লিখেছেন। প্রিয়াংকা চোপড়া জোনাস সাংবাদিকদের অনুষ্ঠান, প্রিমিয়ার এবং ছুটি কাটাতে চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু করার আগে থেকেই দুবাই ও আশপাশের এলাকায় অনেক বার গেছেন। এভাবে সব তারকাই দেশটির প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন