ডলারের মূল্য বৃদ্ধিতে চট্টগ্রাম চেম্বারের উদ্বেগ
jugantor
ডলারের মূল্য বৃদ্ধিতে চট্টগ্রাম চেম্বারের উদ্বেগ

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

৩০ নভেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

শিল্পের কাঁচামাল, মূলধনী যন্ত্রপাতি ও ভোগ্যপণ্যের আমদানি ব্যয় কমানোর লক্ষ্যে ডলারের মূল্য নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ নিতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস এবং বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ফজলে কবিরের প্রতি আহবান জানিয়েছে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি। চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম তাদের কাছে পাঠানো চিঠিতে এ আহবান জানান। সোমবার চেম্বারের পক্ষ থেকে বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানানো হয়েছে।

চিঠিতে চেম্বার সভাপতি বলেন, সম্প্রতি মুদ্রাবাজারে টাকার বিপরীতে ডলারের অত্যধিক মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। এক মাসেরও বেশি ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্য হ্রাস পেয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্ধারিত মূল্য ৮৫.৮৫ টাকা হলেও ব্যাংকগুলোতে ৮৭.৩০ টাকা পর্যন্ত ডলার লেনদেন হচ্ছে। অর্থাৎ বাংলাদেশ ব্যাংক ও তফসিলি ব্যাংকগুলোর মধ্যে ডলারের দামের পার্থক্য প্রায় ২ টাকা। ফলে আমদানিকারকদের বিপুল পরিমাণ টাকা অতিরিক্ত পরিশোধ করতে হচ্ছে। খোলাবাজারে ডলারের দাম ৯৩ টাকা অতিক্রম করেছে। এমতাবস্থায়, বিভিন্ন শিল্পের কাঁচামাল, মূলধনী যন্ত্রপাতি, নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য ইত্যাদি আমদানিতে আমদানিকারকরা বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন ।

এ পরিস্থিতিতে আমদানি করা পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে সংশ্লিষ্ট আমদানিকারকরা এবং ভোক্তাসাধারণ আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন উল্লেখ করে চেম্বার সভাপতি আরও বলেন, যেসব কাঁচামাল আমদানিতে ব্যয় বৃদ্ধি পাচ্ছে সেসব ফিনিশড প্রডাক্টের দামও বৃদ্ধি পাবে। মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি ব্যয় বৃদ্ধি শিল্পায়নের গতিকে ব্যাহত করবে। নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে বাজার অস্থিতিশীল হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে অর্থনীতিতে অত্যন্ত নাজুক অবস্থা বিরাজ করছে। এ সময়ে ডলারের অতিরিক্ত মূল্য বৃদ্ধির ফলে উল্লেখিত খাতসহ সামগ্রিক অর্থনীতিতে অনেক নেতিবাচক প্রভাব পড়বে যা কোনোভাবেই কাম্য হতে পারে না।

চিঠিতে শিল্পের কাঁচামাল, মূলধনী যন্ত্রপাতি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য আমদানিকারকদের আর্থিক ক্ষতি থেকে রক্ষা করা, ভোগ্যপণ্যের বাজার স্থিতিশীল এবং অর্থনৈতিক ভারসাম্য বজায় রাখার লক্ষ্যে ব্যাংকগুলোতে ডলারের সরবরাহ বৃদ্ধিসহ কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের আহবান জানান চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

ডলারের মূল্য বৃদ্ধিতে চট্টগ্রাম চেম্বারের উদ্বেগ

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

শিল্পের কাঁচামাল, মূলধনী যন্ত্রপাতি ও ভোগ্যপণ্যের আমদানি ব্যয় কমানোর লক্ষ্যে ডলারের মূল্য নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ নিতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস এবং বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ফজলে কবিরের প্রতি আহবান জানিয়েছে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি। চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম তাদের কাছে পাঠানো চিঠিতে এ আহবান জানান। সোমবার চেম্বারের পক্ষ থেকে বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানানো হয়েছে।

চিঠিতে চেম্বার সভাপতি বলেন, সম্প্রতি মুদ্রাবাজারে টাকার বিপরীতে ডলারের অত্যধিক মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। এক মাসেরও বেশি ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্য হ্রাস পেয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্ধারিত মূল্য ৮৫.৮৫ টাকা হলেও ব্যাংকগুলোতে ৮৭.৩০ টাকা পর্যন্ত ডলার লেনদেন হচ্ছে। অর্থাৎ বাংলাদেশ ব্যাংক ও তফসিলি ব্যাংকগুলোর মধ্যে ডলারের দামের পার্থক্য প্রায় ২ টাকা। ফলে আমদানিকারকদের বিপুল পরিমাণ টাকা অতিরিক্ত পরিশোধ করতে হচ্ছে। খোলাবাজারে ডলারের দাম ৯৩ টাকা অতিক্রম করেছে। এমতাবস্থায়, বিভিন্ন শিল্পের কাঁচামাল, মূলধনী যন্ত্রপাতি, নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য ইত্যাদি আমদানিতে আমদানিকারকরা বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন ।

এ পরিস্থিতিতে আমদানি করা পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে সংশ্লিষ্ট আমদানিকারকরা এবং ভোক্তাসাধারণ আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন উল্লেখ করে চেম্বার সভাপতি আরও বলেন, যেসব কাঁচামাল আমদানিতে ব্যয় বৃদ্ধি পাচ্ছে সেসব ফিনিশড প্রডাক্টের দামও বৃদ্ধি পাবে। মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি ব্যয় বৃদ্ধি শিল্পায়নের গতিকে ব্যাহত করবে। নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধিতে বাজার অস্থিতিশীল হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে অর্থনীতিতে অত্যন্ত নাজুক অবস্থা বিরাজ করছে। এ সময়ে ডলারের অতিরিক্ত মূল্য বৃদ্ধির ফলে উল্লেখিত খাতসহ সামগ্রিক অর্থনীতিতে অনেক নেতিবাচক প্রভাব পড়বে যা কোনোভাবেই কাম্য হতে পারে না।

চিঠিতে শিল্পের কাঁচামাল, মূলধনী যন্ত্রপাতি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য আমদানিকারকদের আর্থিক ক্ষতি থেকে রক্ষা করা, ভোগ্যপণ্যের বাজার স্থিতিশীল এবং অর্থনৈতিক ভারসাম্য বজায় রাখার লক্ষ্যে ব্যাংকগুলোতে ডলারের সরবরাহ বৃদ্ধিসহ কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের আহবান জানান চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন