জিজ্ঞাসাবাদ শেষে চিত্রনায়ক ইমনকে ছাড়ল র‌্যাব
jugantor
জিজ্ঞাসাবাদ শেষে চিত্রনায়ক ইমনকে ছাড়ল র‌্যাব
প্রয়োজনে ডা. মুরাদ ও মাহিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে -ডিবি

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদ হারানো মুরাদ হাসানের ফোনালাপ ফাঁসের ঘটনায় চিত্রনায়ক মামনুন ইমনকে পাঁচ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গত রাতে ছেড়ে দিয়েছে র‌্যাব। র‌্যাব সদর দপ্তরের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ফোনালাপের অডিও ক্লিপ ফাঁসের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইমনকে ডেকে আনা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রাত সোয়া ১১টায় তিনি র‌্যাব সদর দপ্তর থেকে বের হয়ে যান। এর আগে সন্ধ্যা ৬টার কিছু আগে ইমন র‌্যাব সদর দপ্তরে হাজির হন বলে জানা গেছে।

এদিকে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে প্রয়োজনে সদ্য পদত্যাগী তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এবং চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) যুগ্ম-কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, গত রাতে (সোমবার) চিত্রনায়ক ইমন একটি ছবির দাওয়াত নিয়ে ডিবি কার্যালয়ে এসেছিলেন। তার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে ডিবি কর্মকর্তাদের কথা হয়েছে। কথাবার্তায় মুরাদ-মাহির বিষয়টিও উঠে এসেছে। এ বিষয়ে ইমনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তার মোবাইল থেকে এই অডিও ফাঁস হয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এক প্রশ্নের জবাবে ডিবির এই কর্মকর্তা বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে কেউ যদি অভিযোগ করেন এবং ডিবি সাইবার ক্রাইম ইউনিটে যদি অভিযোগ আসে তাহলে আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব। তিনি বলেন, মাহি এখন দেশের বাইরে। তিনি দেশে ফিরলে প্রয়োজনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। সেদিন ফোনালাপের পরে ধর্ষণ সংঘটিত হয়েছিল কিনা-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ ধরনের অভিযোগ আমাদের কাছে এখনো আসেনি। আমরা প্রয়োজনে সবার সঙ্গেই কথা বলব। ‘নায়ক ইমনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ রয়েছে যে-তিনি নায়িকাদের বিভিন্নভাবে ব্যবহার করেন। এছাড়া প্রতিমন্ত্রীর কাছেও তিনি নিয়ে যাওয়ার কথা বলছিলেন, আপনারা ইমনের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেবেন কিনা’-এর জবাবে তিনি বলেন, কেবল আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ পেলেই বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখব।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চান মাহি : সৌদি আরব থেকে ওমরাহ শেষে দেশে ফিরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চান বলে জানিয়েছেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এক ফেসবুক পোস্টে মঙ্গলবার মাহি বলেন, ‘ওমরাহ থেকে ফিরেই আমার প্রথম এবং একমাত্র চাওয়া আমাদের সবার অভিভাবক, মমতাময়ী মা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ৩০ সেকেন্ডের জন্য হলেও দেখা করতে চাই। অনেক কিছু বলার আছে। এই মনোবাসনা নিয়েই আমি মক্কা ত্যাগ করব। আমার বিশ্বাস, এই চাওয়া ব্যর্থ হবে না।’ স্বামী রাকিব সরকারকে নিয়ে ওমরাহ পালন করতে ২৪ নভেম্বর সৌদি আরব যান মাহি।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে চিত্রনায়ক ইমনকে ছাড়ল র‌্যাব

প্রয়োজনে ডা. মুরাদ ও মাহিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে -ডিবি
 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদ হারানো মুরাদ হাসানের ফোনালাপ ফাঁসের ঘটনায় চিত্রনায়ক মামনুন ইমনকে পাঁচ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গত রাতে ছেড়ে দিয়েছে র‌্যাব। র‌্যাব সদর দপ্তরের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ফোনালাপের অডিও ক্লিপ ফাঁসের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইমনকে ডেকে আনা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রাত সোয়া ১১টায় তিনি র‌্যাব সদর দপ্তর থেকে বের হয়ে যান। এর আগে সন্ধ্যা ৬টার কিছু আগে ইমন র‌্যাব সদর দপ্তরে হাজির হন বলে জানা গেছে।

এদিকে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে প্রয়োজনে সদ্য পদত্যাগী তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এবং চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) যুগ্ম-কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, গত রাতে (সোমবার) চিত্রনায়ক ইমন একটি ছবির দাওয়াত নিয়ে ডিবি কার্যালয়ে এসেছিলেন। তার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে ডিবি কর্মকর্তাদের কথা হয়েছে। কথাবার্তায় মুরাদ-মাহির বিষয়টিও উঠে এসেছে। এ বিষয়ে ইমনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তার মোবাইল থেকে এই অডিও ফাঁস হয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এক প্রশ্নের জবাবে ডিবির এই কর্মকর্তা বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে কেউ যদি অভিযোগ করেন এবং ডিবি সাইবার ক্রাইম ইউনিটে যদি অভিযোগ আসে তাহলে আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব। তিনি বলেন, মাহি এখন দেশের বাইরে। তিনি দেশে ফিরলে প্রয়োজনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। সেদিন ফোনালাপের পরে ধর্ষণ সংঘটিত হয়েছিল কিনা-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ ধরনের অভিযোগ আমাদের কাছে এখনো আসেনি। আমরা প্রয়োজনে সবার সঙ্গেই কথা বলব। ‘নায়ক ইমনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ রয়েছে যে-তিনি নায়িকাদের বিভিন্নভাবে ব্যবহার করেন। এছাড়া প্রতিমন্ত্রীর কাছেও তিনি নিয়ে যাওয়ার কথা বলছিলেন, আপনারা ইমনের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেবেন কিনা’-এর জবাবে তিনি বলেন, কেবল আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ পেলেই বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখব।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চান মাহি : সৌদি আরব থেকে ওমরাহ শেষে দেশে ফিরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চান বলে জানিয়েছেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এক ফেসবুক পোস্টে মঙ্গলবার মাহি বলেন, ‘ওমরাহ থেকে ফিরেই আমার প্রথম এবং একমাত্র চাওয়া আমাদের সবার অভিভাবক, মমতাময়ী মা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ৩০ সেকেন্ডের জন্য হলেও দেখা করতে চাই। অনেক কিছু বলার আছে। এই মনোবাসনা নিয়েই আমি মক্কা ত্যাগ করব। আমার বিশ্বাস, এই চাওয়া ব্যর্থ হবে না।’ স্বামী রাকিব সরকারকে নিয়ে ওমরাহ পালন করতে ২৪ নভেম্বর সৌদি আরব যান মাহি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন