ট্রলার থামিয়ে আ.লীগ নেতাকে কোপাল কিশোর গ্যাং
jugantor
ট্রলার থামিয়ে আ.লীগ নেতাকে কোপাল কিশোর গ্যাং

  বরিশাল ব্যুরো ও মেহেন্দিগঞ্জ প্রতিনিধি  

১৮ মে ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কোপাল

ট্রলার থামিয়ে প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগ নেতাকে এলোপাতাড়ি কোপাল কিশোরগ্যাং। হামলার শিকার ওই আওয়ামী লীগ নেতা আহত অবস্থায় থানায় গেলেও পুলিশ মামলা নেয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দড়ির চর খাজুরিয়া ইউনিয়নের পাতারহাট ট্রলার ঘাটে এ ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার ওই আওয়ামী লীগ নেতার নাম সালাম দেওয়ান। তিনি দড়ির চর খাজুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি। হামলাকারী কিশোর গ্যাং নেতা রাতুল এর আগে ও ওই আওয়ামী লীগ নেতার ওপর হামলা চালায়। ওই মামলায় প্রধান আসামি হলেও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এর জের ধরে পুনরায় হামলা চালিয়েছে রাতুল দাবি করেছেন সালাম দেওয়ান।

আহত সালাম দেওয়ান জানান, রাতুল এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করে। সে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেনের ক্যাডার। তার বিরুদ্ধে ১০টারও বেশি মাদক মামলা রয়েছে। বিষয়টি পুলিশ জানলেও তাকে আটক করেনি। ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন-রাতুলের সঙ্গে তার সম্পর্ক নেই। রাতুলের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে। মেহেন্দিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, রাতুল এর আগে সালাম দেওয়ানের ওপর হামলা চালিয়েছিল। ওই ঘটনায় মামলা হয়েছে। তবে তিনি আদালত থেকে জামিনে মুক্ত রয়েছেন। পুনরায় সালাম দেওয়ানের ওপর হামলার ঘটনায় পুলিশ পাঠিয়েছি। রাতুলকে আটকে অভিযান চলছে।

ট্রলার থামিয়ে আ.লীগ নেতাকে কোপাল কিশোর গ্যাং

 বরিশাল ব্যুরো ও মেহেন্দিগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৮ মে ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
কোপাল
মেহেন্দীগঞ্জে কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় আহত সালাম দেওয়ান -যুগান্তর

ট্রলার থামিয়ে প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগ নেতাকে এলোপাতাড়ি কোপাল কিশোরগ্যাং। হামলার শিকার ওই আওয়ামী লীগ নেতা আহত অবস্থায় থানায় গেলেও পুলিশ মামলা নেয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দড়ির চর খাজুরিয়া ইউনিয়নের পাতারহাট ট্রলার ঘাটে এ ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার ওই আওয়ামী লীগ নেতার নাম সালাম দেওয়ান। তিনি দড়ির চর খাজুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি। হামলাকারী কিশোর গ্যাং নেতা রাতুল এর আগে ও ওই আওয়ামী লীগ নেতার ওপর হামলা চালায়। ওই মামলায় প্রধান আসামি হলেও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এর জের ধরে পুনরায় হামলা চালিয়েছে রাতুল দাবি করেছেন সালাম দেওয়ান।

আহত সালাম দেওয়ান জানান, রাতুল এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করে। সে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেনের ক্যাডার। তার বিরুদ্ধে ১০টারও বেশি মাদক মামলা রয়েছে। বিষয়টি পুলিশ জানলেও তাকে আটক করেনি। ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন-রাতুলের সঙ্গে তার সম্পর্ক নেই। রাতুলের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে। মেহেন্দিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, রাতুল এর আগে সালাম দেওয়ানের ওপর হামলা চালিয়েছিল। ওই ঘটনায় মামলা হয়েছে। তবে তিনি আদালত থেকে জামিনে মুক্ত রয়েছেন। পুনরায় সালাম দেওয়ানের ওপর হামলার ঘটনায় পুলিশ পাঠিয়েছি। রাতুলকে আটকে অভিযান চলছে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন