খুলনায় ডেকে নিয়ে কলেজছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা
jugantor
খুলনায় ডেকে নিয়ে কলেজছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা
গ্রেফতার ১

  খুলনা ব্যুরো  

০২ জুলাই ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

হত্যা

খুলনায় সৈয়দ তাহমিদুন্নবী তাহসিন (২২) নামে এক কলেজছাত্রকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে দৌলতপুর নতুনরাস্তা মোড়ে তাকে বাটালি (কাঠ মসৃন করতে ব্যবহার হয়) দিয়ে কুপিয়ে আহত করে দুই ব্যক্তি। পরে রাত ১টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় পুলিশ পিয়াল মোল্লা নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে।

তাহসিনের দুলাভাই আরজি উজ্জ্বল জানান, তাহসিনের বাড়ি দৌলতপুরের পাবলার সাহাপাড়া। নগরীর রায়েরমহল কলেজে ডিগ্রিতে পড়তেন তিনি। বৃহস্পতিবার দুপুরে পিয়াল মোল্লা তাকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে দৌলতপুর নতুনরাস্তা মোড়ে নিয়ে পিয়াল ও পলাশ মোল্লা তাকে বাটালি দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাকে গুরুতর আহতাবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে মারা যান তিনি। উজ্জ্বলের দাবি, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এ ঘটনায় স্থানীয় কাঠ ব্যবসায়ী পলাশ মোল্লা ও পিয়াল মোল্লাকে আসামি করে নিহত তাহসিনের বাবা সৈয়দ তৌহিদুন্নবী দৌলতপুর থানায় মামলা করেছেন।

শুক্রবার ময়নাতদন্ত শেষে তাহসিনের লাশ সাহাপাড়ায় তার বাসায় নেওয়া হলে স্বজনদের আহাজারিতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। এরপর নগরীর নতুনরাস্তা মোড়ে জানাজা শেষে গোয়ালখালী কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে। দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, পলাশ মোল্লা কাঠের কাজ করে। ৪-৫ দিন আগে তার দোকান থেকে কিছু মালামাল চুরি হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাহসিন হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর আগে বুধবার নগরীর খালিশপুরে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন দুই হত্যা মামলার আসামি মোল্যা জুলকার নাঈম মুন্না ওরফে মারজান মুন্না (৩৮)। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দুই খুনের ঘটনায় নগরীতে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

খুলনায় ডেকে নিয়ে কলেজছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

গ্রেফতার ১
 খুলনা ব্যুরো 
০২ জুলাই ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
হত্যা
খুলনায় ছুরিকাঘাতে নিহত কলেজছাত্র তাহসিনের লাশ শুক্রবার বাড়িতে পৌঁছলে স্বজনদের আহাজারি -যুগান্তর

খুলনায় সৈয়দ তাহমিদুন্নবী তাহসিন (২২) নামে এক কলেজছাত্রকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে দৌলতপুর নতুনরাস্তা মোড়ে তাকে বাটালি (কাঠ মসৃন করতে ব্যবহার হয়) দিয়ে কুপিয়ে আহত করে দুই ব্যক্তি। পরে রাত ১টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় পুলিশ পিয়াল মোল্লা নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে।

তাহসিনের দুলাভাই আরজি উজ্জ্বল জানান, তাহসিনের বাড়ি দৌলতপুরের পাবলার সাহাপাড়া। নগরীর রায়েরমহল কলেজে ডিগ্রিতে পড়তেন তিনি। বৃহস্পতিবার দুপুরে পিয়াল মোল্লা তাকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে দৌলতপুর নতুনরাস্তা মোড়ে নিয়ে পিয়াল ও পলাশ মোল্লা তাকে বাটালি দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাকে গুরুতর আহতাবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে মারা যান তিনি। উজ্জ্বলের দাবি, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এ ঘটনায় স্থানীয় কাঠ ব্যবসায়ী পলাশ মোল্লা ও পিয়াল মোল্লাকে আসামি করে নিহত তাহসিনের বাবা সৈয়দ তৌহিদুন্নবী দৌলতপুর থানায় মামলা করেছেন।

শুক্রবার ময়নাতদন্ত শেষে তাহসিনের লাশ সাহাপাড়ায় তার বাসায় নেওয়া হলে স্বজনদের আহাজারিতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। এরপর নগরীর নতুনরাস্তা মোড়ে জানাজা শেষে গোয়ালখালী কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে। দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, পলাশ মোল্লা কাঠের কাজ করে। ৪-৫ দিন আগে তার দোকান থেকে কিছু মালামাল চুরি হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাহসিন হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর আগে বুধবার নগরীর খালিশপুরে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন দুই হত্যা মামলার আসামি মোল্যা জুলকার নাঈম মুন্না ওরফে মারজান মুন্না (৩৮)। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দুই খুনের ঘটনায় নগরীতে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন