ইবি বোয়ালখালী ও গাংনীতে ছাত্রলীগের হামলা
jugantor
ইবি বোয়ালখালী ও গাংনীতে ছাত্রলীগের হামলা
আহত ১৩ ভাঙচুর, ধাওয়া পালটাধাওয়া

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৪ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের মাঝে ফুল ও শিক্ষা সামগ্রী বিতরণকালে ছাত্রদল কর্মীদের ওপর শনিবার হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। একইভাবে এদিন চট্টগ্রামের বোয়ালখালীর স্যার আশুতোষ সরকারি কলেজে শিক্ষার্থীদের দাবি-দাওয়া আদায়ে ডাকা ছাত্র ইউনিয়নের মানববন্ধনে হামলা চালায় সরকারদলীয় এ ছাত্র সংগঠনটি। এ ছাড়া এদিন মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে তা ভাঙচুর করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পালটাধাওয়া হয়েছে। এসব ঘটনায় অন্তত ১৩ জন আহত হয়েছেন। যুগান্তরের ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

ইবি : ভর্তি পরীক্ষা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের থানা গেটে ভর্তিচ্ছুদের মাঝে ফুল, কলম ও পানি এবং শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করছিলেন ইবি শাখা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। একই সময় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত ও সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয়ের নেতৃত্বে ভর্তিচ্ছুদের স্বাগত জানিয়ে শুভেচ্ছা মিছিল বের করে ছাত্রলীগ। থানা গেট এলাকায় ছাত্রদলের উপস্থিতি জানতে পেরে ছাত্রলীগকর্মীরা তাদের ধাওয়া দেয়। তিন কর্মী তরিকুল ইসলাম সৌরভ, মামুন ও ইমরানকে ধরতে পেরে তাদের মারধর করে। গুরুতর আহত তরিকুলকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক সাহেদ আহম্মেদ বলেন, গুরুতর আহত কর্মীদের হাসপাতালে নেওয়ার জন্য প্রক্টরের কাছে ফোন করে অ্যাম্বুলেন্স চাওয়া হলেও তা পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় তীব্র ঘৃণা ও ক্ষোভ জানিয়েছেন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক। তারা এ ঘটনায় দোষীদের বিচার দাবি ও আহতদের সুচিকিৎসা এবং ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

চট্টগ্রাম ব্যুরো ও বোয়ালখালী : ঐতিহ্যবাহী কানুনগোপাড়া স্যার আশুতোষ সরকারি কলেজে ভবন সংকট, শিক্ষক সংকটসহ নানা সংকট বিরাজ করছে। এসব সংকট নিরসনের দাবিতে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন কলেজ শাখা শনিবার মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে। কলেজ গেটে এ কর্মসূচিতে ছাত্র ইউনিয়ন নেতারা বক্তব্য প্রদানকালে কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শিমুল সর্দারের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রড, কাঠ, এসএস পাইপসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। তারা ছাত্র ইউনিয়নের ব্যানার কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলে। শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে। এ সময় কয়েকজনের মোবাইলও ছিনিয়ে নেওয়া হয়। হামলায় গুরুতর আহত হন ছাত্র ইউনিয়ন কলেজ শাখার আহ্বায়ক হিমেল চৌধুরীসহ অন্তত ১০ জন।

হামলাকারীদের নিবৃত্ত করতে এগিয়ে আসেন দক্ষিণ জেলা যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সেহাব উদ্দিন সাইফু ও উপজেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক অনুপম বড়ুয়া পারু। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদেরও লাঞ্ছিত করে। হিমেল চৌধুরী বলেন, কলেজের উন্নয়নে ন্যায্য দাবিতে শিক্ষামন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান ও মানববন্ধন করছিলাম। ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা এ নিন্দনীয় হামলা চালায়। আহতদের মধ্যে ৫ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মেহেরপুর : প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, দুপুরে গাংনী উপজেলা বিএনপির অফিসে কয়েকজন নেতাকর্মী ছিলেন। এ সময় সরকারি ডিগ্রি কলেজ চত্বর থেকে ছাত্রলীগ বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে গাংনী বাস স্টেশনে এসে শেষ করে। মিছিল শেষে নেতাকর্মীরা বিএনপি অফিসে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেন। প্রতিবাদ করতে বিএনপির কয়েকজন কর্মী ধারালো অস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ধাওয়া করেন। এতে দুপক্ষে ধাওয়া-পালটাধাওয়া হয়। পরে পুলিশের একাধিক দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এদিকে বিএনপির ‘হামলার প্রতিবাদে’ তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা ছাত্রলীগ গাংনী বাস স্টেশন চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশ করে। সেখানে বক্তব্য দেন মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের সংসদ-সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন প্রমুখ। তারা রোববার বিকালে বাসস্ট্যান্ডের রেজাউল চত্বরে বিক্ষোভ-সমাবেশের ঘোষণা দেন।

গাংনী পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক জামাল আহম্মেদ বলেন, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা পরিকল্পিতভাবে বিএনপি অফিসে হামলা করেছেন। পালটা অভিযোগ করে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম সেন্টু বলেন, ছাত্রলীগের মিছিলে বিএনপির নেতাকর্মীরা রামদা নিয়ে ধাওয়া করেন।

ইবি বোয়ালখালী ও গাংনীতে ছাত্রলীগের হামলা

আহত ১৩ ভাঙচুর, ধাওয়া পালটাধাওয়া
 যুগান্তর ডেস্ক 
১৪ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের মাঝে ফুল ও শিক্ষা সামগ্রী বিতরণকালে ছাত্রদল কর্মীদের ওপর শনিবার হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। একইভাবে এদিন চট্টগ্রামের বোয়ালখালীর স্যার আশুতোষ সরকারি কলেজে শিক্ষার্থীদের দাবি-দাওয়া আদায়ে ডাকা ছাত্র ইউনিয়নের মানববন্ধনে হামলা চালায় সরকারদলীয় এ ছাত্র সংগঠনটি। এ ছাড়া এদিন মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে তা ভাঙচুর করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পালটাধাওয়া হয়েছে। এসব ঘটনায় অন্তত ১৩ জন আহত হয়েছেন। যুগান্তরের ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

ইবি : ভর্তি পরীক্ষা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের থানা গেটে ভর্তিচ্ছুদের মাঝে ফুল, কলম ও পানি এবং শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করছিলেন ইবি শাখা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। একই সময় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত ও সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয়ের নেতৃত্বে ভর্তিচ্ছুদের স্বাগত জানিয়ে শুভেচ্ছা মিছিল বের করে ছাত্রলীগ। থানা গেট এলাকায় ছাত্রদলের উপস্থিতি জানতে পেরে ছাত্রলীগকর্মীরা তাদের ধাওয়া দেয়। তিন কর্মী তরিকুল ইসলাম সৌরভ, মামুন ও ইমরানকে ধরতে পেরে তাদের মারধর করে। গুরুতর আহত তরিকুলকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক সাহেদ আহম্মেদ বলেন, গুরুতর আহত কর্মীদের হাসপাতালে নেওয়ার জন্য প্রক্টরের কাছে ফোন করে অ্যাম্বুলেন্স চাওয়া হলেও তা পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় তীব্র ঘৃণা ও ক্ষোভ জানিয়েছেন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক। তারা এ ঘটনায় দোষীদের বিচার দাবি ও আহতদের সুচিকিৎসা এবং ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

চট্টগ্রাম ব্যুরো ও বোয়ালখালী : ঐতিহ্যবাহী কানুনগোপাড়া স্যার আশুতোষ সরকারি কলেজে ভবন সংকট, শিক্ষক সংকটসহ নানা সংকট বিরাজ করছে। এসব সংকট নিরসনের দাবিতে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন কলেজ শাখা শনিবার মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে। কলেজ গেটে এ কর্মসূচিতে ছাত্র ইউনিয়ন নেতারা বক্তব্য প্রদানকালে কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শিমুল সর্দারের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রড, কাঠ, এসএস পাইপসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। তারা ছাত্র ইউনিয়নের ব্যানার কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলে। শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে। এ সময় কয়েকজনের মোবাইলও ছিনিয়ে নেওয়া হয়। হামলায় গুরুতর আহত হন ছাত্র ইউনিয়ন কলেজ শাখার আহ্বায়ক হিমেল চৌধুরীসহ অন্তত ১০ জন।

হামলাকারীদের নিবৃত্ত করতে এগিয়ে আসেন দক্ষিণ জেলা যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সেহাব উদ্দিন সাইফু ও উপজেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক অনুপম বড়ুয়া পারু। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদেরও লাঞ্ছিত করে। হিমেল চৌধুরী বলেন, কলেজের উন্নয়নে ন্যায্য দাবিতে শিক্ষামন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান ও মানববন্ধন করছিলাম। ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা এ নিন্দনীয় হামলা চালায়। আহতদের মধ্যে ৫ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মেহেরপুর : প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, দুপুরে গাংনী উপজেলা বিএনপির অফিসে কয়েকজন নেতাকর্মী ছিলেন। এ সময় সরকারি ডিগ্রি কলেজ চত্বর থেকে ছাত্রলীগ বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে গাংনী বাস স্টেশনে এসে শেষ করে। মিছিল শেষে নেতাকর্মীরা বিএনপি অফিসে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেন। প্রতিবাদ করতে বিএনপির কয়েকজন কর্মী ধারালো অস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ধাওয়া করেন। এতে দুপক্ষে ধাওয়া-পালটাধাওয়া হয়। পরে পুলিশের একাধিক দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এদিকে বিএনপির ‘হামলার প্রতিবাদে’ তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা ছাত্রলীগ গাংনী বাস স্টেশন চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশ করে। সেখানে বক্তব্য দেন মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের সংসদ-সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন প্রমুখ। তারা রোববার বিকালে বাসস্ট্যান্ডের রেজাউল চত্বরে বিক্ষোভ-সমাবেশের ঘোষণা দেন।

গাংনী পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক জামাল আহম্মেদ বলেন, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা পরিকল্পিতভাবে বিএনপি অফিসে হামলা করেছেন। পালটা অভিযোগ করে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম সেন্টু বলেন, ছাত্রলীগের মিছিলে বিএনপির নেতাকর্মীরা রামদা নিয়ে ধাওয়া করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন