বগুড়ায় মাথায় রড ঢুকে শিশুর মৃত্যু, আহত বাবা-মা
jugantor
রডের ট্রাক্টরে বাইকের ধাক্কা
বগুড়ায় মাথায় রড ঢুকে শিশুর মৃত্যু, আহত বাবা-মা

  বগুড়া ব্যুরো  

০৬ অক্টোবর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় রডবোঝাই ট্রাক্টরের পেছনে মোটরসাইকেলের (বাইক) ধাক্কায় মাথায় রড ঢুকে সোহাগ হোসেন (৮) নামে এক শিশু নিহত হয়েছে।

এ সময় পেটে রডের আঘাত এবং ছিটকে পড়ে তার বাবা-মা আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার তিসিগাড়ী এলাকায় বগুড়া-নওগাঁ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পূজার ছুটিতে বগুড়া শহরে বেড়ানো শেষে তারা বাড়ি ফিরছিলেন।

নিহত সোহাগ নওগাঁর মান্দা উপজেলার চকবালু গ্রামের একরামুল হোসেনের (৩৫) ছেলে। একরামুল বাইকটি চালাচ্ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, একরামুল বেসরকারি সংস্থা আশার বগুড়ার মহাস্থানগড় শাখার ব্যবস্থাপক। বাইকে স্ত্রী সালমা খাতুন (৩০) ও ছেলে সোহাগ হোসেনকে (৮) নিয়ে মঙ্গলবার বগুড়া শহরের বিনোদনকেন্দ্রগুলোয় বেড়াতে আসেন তিনি। ফেরার পথে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে দুপচাঁচিয়া উপজেলার তিসিগাড়ী এলাকায় একরামুল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে থাকা রডবোঝাই বিকল ট্রাক্টরের পেছনে ধাক্কা দেন।

এতে তার ছেলে সোহাগের মাথায় রড ঢুকে যায়। পেটে রডের আঘাত পান একরামুল। স্ত্রী মোটরসাইকেল থেকে সড়কে ছিটকে পড়ে আহত হন। পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৯টার দিকে শিশু সোহাগ মারা যায়।

ছিলিমপুর মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই রাকিবুল হাসান জানান, শিশুটির বাবা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ও মা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

দুপচাঁচিয়া থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, বিকল রডবোঝাই ট্রাক্টর জব্দ করলেও এর চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

রডের ট্রাক্টরে বাইকের ধাক্কা

বগুড়ায় মাথায় রড ঢুকে শিশুর মৃত্যু, আহত বাবা-মা

 বগুড়া ব্যুরো 
০৬ অক্টোবর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় রডবোঝাই ট্রাক্টরের পেছনে মোটরসাইকেলের (বাইক) ধাক্কায় মাথায় রড ঢুকে সোহাগ হোসেন (৮) নামে এক শিশু নিহত হয়েছে।

এ সময় পেটে রডের আঘাত এবং ছিটকে পড়ে তার বাবা-মা আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার তিসিগাড়ী এলাকায় বগুড়া-নওগাঁ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পূজার ছুটিতে বগুড়া শহরে বেড়ানো শেষে তারা বাড়ি ফিরছিলেন।

নিহত সোহাগ নওগাঁর মান্দা উপজেলার চকবালু গ্রামের একরামুল হোসেনের (৩৫) ছেলে। একরামুল বাইকটি চালাচ্ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, একরামুল বেসরকারি সংস্থা আশার বগুড়ার মহাস্থানগড় শাখার ব্যবস্থাপক। বাইকে স্ত্রী সালমা খাতুন (৩০) ও ছেলে সোহাগ হোসেনকে (৮) নিয়ে মঙ্গলবার বগুড়া শহরের বিনোদনকেন্দ্রগুলোয় বেড়াতে আসেন তিনি। ফেরার পথে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে দুপচাঁচিয়া উপজেলার তিসিগাড়ী এলাকায় একরামুল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে থাকা রডবোঝাই বিকল ট্রাক্টরের পেছনে ধাক্কা দেন।

এতে তার ছেলে সোহাগের মাথায় রড ঢুকে যায়। পেটে রডের আঘাত পান একরামুল। স্ত্রী মোটরসাইকেল থেকে সড়কে ছিটকে পড়ে আহত হন। পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৯টার দিকে শিশু সোহাগ মারা যায়।

ছিলিমপুর মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই রাকিবুল হাসান জানান, শিশুটির বাবা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ও মা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

দুপচাঁচিয়া থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, বিকল রডবোঝাই ট্রাক্টর জব্দ করলেও এর চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন