কর্ণফুলী টানেলের প্রথম টিউবের উদ্বোধন আজ
jugantor
কর্ণফুলী টানেলের প্রথম টিউবের উদ্বোধন আজ

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

২৬ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের দুটি টিউবের একটি উদ্বোধন হবে আজ। সকাল ১০টায় টানেলের পতেঙ্গা প্রান্তে আয়োজিত উৎসবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রথম টিউব উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের সচিব মনজুর হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

প্রকল্পসংশ্লিষ্টরা জানান, দক্ষিণ টিউব দিয়ে আনোয়ারা থেকে চট্টগ্রাম শহরে এবং উত্তর টিউব দিয়ে চট্টগ্রাম থেকে আনোয়ারার দিকে যান চলাচল করবে। দুটি টিউবের অপরটির বাকি কাজ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে। টিউবের নির্মাণকাজ শেষ হলেও বৈদ্যুতিক, মেকানিক্যালসহ আরও কিছু কাজ বাকি আছে। এসব কাজ শেষ করে যান চলাচলের জন্য টানেল প্রস্তুত হতে জানুয়ারি পর্যন্ত সময় লেগে যেতে পারে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে টানেল দিয়ে যান চলাচল করতে পারবে ফেব্রুয়ারি মাসে।

জানা যায়, টানেলটি ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হচ্ছে। নদীর তলদেশে নির্মিত দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম টানেল এটি। কর্ণফুলীর দুই তীরকে সংযুক্ত করে চীনের সাংহাই শহরের আদলে ‘ওয়ান সিটি টু টাউন’ গড়ে তোলার লক্ষ্যে টানেল প্রকল্প গ্রহণ করে সরকার। দুই টিউব সংবলিত মূল টানেলের দৈর্ঘ্য ৩ দশমিক ৩২ কিলোমিটার। টানেল টিউবের দৈর্ঘ্য ২ দশমিক ৪৫ কিলোমিটার এবং ভেতরের ব্যাস ১০ দশমিক ৮০ মিটার।

২০১৯ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথম টানেল টিউবের বোরিং কাজ উদ্বোধন করেন। ২০২০ সালের ১২ ডিসেম্বর সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের দ্বিতীয় টিউবের কাজ উদ্বোধন করেন।

কর্ণফুলী টানেলের প্রথম টিউবের উদ্বোধন আজ

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের দুটি টিউবের একটি উদ্বোধন হবে আজ। সকাল ১০টায় টানেলের পতেঙ্গা প্রান্তে আয়োজিত উৎসবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রথম টিউব উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের সচিব মনজুর হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

প্রকল্পসংশ্লিষ্টরা জানান, দক্ষিণ টিউব দিয়ে আনোয়ারা থেকে চট্টগ্রাম শহরে এবং উত্তর টিউব দিয়ে চট্টগ্রাম থেকে আনোয়ারার দিকে যান চলাচল করবে। দুটি টিউবের অপরটির বাকি কাজ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে। টিউবের নির্মাণকাজ শেষ হলেও বৈদ্যুতিক, মেকানিক্যালসহ আরও কিছু কাজ বাকি আছে। এসব কাজ শেষ করে যান চলাচলের জন্য টানেল প্রস্তুত হতে জানুয়ারি পর্যন্ত সময় লেগে যেতে পারে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে টানেল দিয়ে যান চলাচল করতে পারবে ফেব্রুয়ারি মাসে।

জানা যায়, টানেলটি ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হচ্ছে। নদীর তলদেশে নির্মিত দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম টানেল এটি। কর্ণফুলীর দুই তীরকে সংযুক্ত করে চীনের সাংহাই শহরের আদলে ‘ওয়ান সিটি টু টাউন’ গড়ে তোলার লক্ষ্যে টানেল প্রকল্প গ্রহণ করে সরকার। দুই টিউব সংবলিত মূল টানেলের দৈর্ঘ্য ৩ দশমিক ৩২ কিলোমিটার। টানেল টিউবের দৈর্ঘ্য ২ দশমিক ৪৫ কিলোমিটার এবং ভেতরের ব্যাস ১০ দশমিক ৮০ মিটার।

২০১৯ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথম টানেল টিউবের বোরিং কাজ উদ্বোধন করেন। ২০২০ সালের ১২ ডিসেম্বর সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের দ্বিতীয় টিউবের কাজ উদ্বোধন করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন