ভোলায় আর্জেন্টিনা সমর্থিত দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১
jugantor
ভোলায় আর্জেন্টিনা সমর্থিত দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১
আহত ১৫ আটক ৯

  ভোলা প্রতিনিধি  

০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ভোলায় বিশ্বকাপ ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে আর্জেন্টিনা সমর্থক দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছে।

নিহতের নাম মো. হৃদয় (২১)। সে জেলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের চেওয়াখালী গ্রামের মো. ইব্রাহীমের ছেলে। আহতরা ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। রাতের সংঘর্ষের পর বুধবার ভোরে মারা যায় হৃদয়।

ভোলা মডেল থানার ওসি শাহীন ফকির জানান, আর্জেন্টিনা টিমের ভোলার ধনিয়া ইউনিয়নের চেউয়াখালী এলাকার সমর্থক গ্রুপের মধ্যে নেতৃত্বের দ্বন্দ্বে সংঘর্ষের ঘটনায় ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। তারা হলো মহিউদ্দিন, আবদুল্লাহ, নয়ন, লিটন, তালহা, আবদুর রশিদ, আশিক, মুন্না ও আরিফ।

এলাকার ব্যবসায়ী হেলাল উদ্দিন জানান, খেলা দেখার জন্য আর্জেন্টিনা সমর্থক কয়েক যুবক ৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় চেওয়াখালীর রুবেলের দোকান এলাকায় নুডলসপার্টির আয়োজন করে। জনপ্রতি ৩০ টাকা চাঁদা তোলে তালহা, আশিক, হৃদয় ও রুবেলসহ কয়েকজন। এতে অংশ নেয় আর্জেন্টিনা সমর্থক ওই এলাকার আকবর, ইয়ামিন, মহিউদ্দিন, নয়ন, সাহাবউদ্দিন ও অলিসহ কয়েকজন। রাতে নুডলস রান্নার সময় লাকড়ি জোগান দেওয়াসহ নানা কাজ ও নেতৃত্ব নিয়ে নিজেদের মধ্যে কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার রাতে ফের দ্বিতীয় দফা সংঘর্ষ হয়। এতে উভয়পক্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হয়। বুধবার ভোরে আহত হৃদয় মারা যায়।

ভোলায় আর্জেন্টিনা সমর্থিত দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১

আহত ১৫ আটক ৯
 ভোলা প্রতিনিধি 
০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ভোলায় বিশ্বকাপ ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে আর্জেন্টিনা সমর্থক দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছে।

নিহতের নাম মো. হৃদয় (২১)। সে জেলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের চেওয়াখালী গ্রামের মো. ইব্রাহীমের ছেলে। আহতরা ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। রাতের সংঘর্ষের পর বুধবার ভোরে মারা যায় হৃদয়।

ভোলা মডেল থানার ওসি শাহীন ফকির জানান, আর্জেন্টিনা টিমের ভোলার ধনিয়া ইউনিয়নের চেউয়াখালী এলাকার সমর্থক গ্রুপের মধ্যে নেতৃত্বের দ্বন্দ্বে সংঘর্ষের ঘটনায় ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। তারা হলো মহিউদ্দিন, আবদুল্লাহ, নয়ন, লিটন, তালহা, আবদুর রশিদ, আশিক, মুন্না ও আরিফ।

এলাকার ব্যবসায়ী হেলাল উদ্দিন জানান, খেলা দেখার জন্য আর্জেন্টিনা সমর্থক কয়েক যুবক ৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় চেওয়াখালীর রুবেলের দোকান এলাকায় নুডলসপার্টির আয়োজন করে। জনপ্রতি ৩০ টাকা চাঁদা তোলে তালহা, আশিক, হৃদয় ও রুবেলসহ কয়েকজন। এতে অংশ নেয় আর্জেন্টিনা সমর্থক ওই এলাকার আকবর, ইয়ামিন, মহিউদ্দিন, নয়ন, সাহাবউদ্দিন ও অলিসহ কয়েকজন। রাতে নুডলস রান্নার সময় লাকড়ি জোগান দেওয়াসহ নানা কাজ ও নেতৃত্ব নিয়ে নিজেদের মধ্যে কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার রাতে ফের দ্বিতীয় দফা সংঘর্ষ হয়। এতে উভয়পক্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হয়। বুধবার ভোরে আহত হৃদয় মারা যায়।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন