তিন সিটিতে অঘোষিত সান্ধ্য আইন জারি করা হয়েছে : বিএনপি

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৯ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তিন সিটিতে অঘোষিত সান্ধ্য আইন জারি করা হয়েছে : বিএনপি
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

তিন সিটিতে অঘোষিত সান্ধ্য আইন জারি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, তিন সিটিতে ভোটাররা অন্ধকার শ্বাসরুদ্ধ পরিবেশের মধ্যে সময় পার করছেন। ক্ষমতাসীন দল পুলিশের সহায়তায় ভোটারশূন্য পরিস্থিতি তৈরি করতে নানা ফন্দি এঁটে চলেছে।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকার, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, নির্বাহী কমিটির সদস্য আমিনুর ইসলাম প্রমুখ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগ সব আইনি বাধ্যবাধকতাকে অতিক্রম করে এক বেপরোয়া দুঃশাসন চালু করার জন্য নির্বাচন ও মানুষের ভোটাধিকারকে নির্বাসনে দিয়েছে। ভোট কারচুপি আর ভোট সন্ত্রাসকে আওয়ামী নির্বাচনের উপজীব্য করা হয়েছে।

তিন সিটিতে মহিলাদেরও হয়রানি থেকে বাদ দেয়া হচ্ছে না অভিযোগ করে তিনি বলেন, অনেক ক্ষেত্রে মহিলারা যাতে নির্বাচনের দিন পোলিং এজেন্ট হিসেবে ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হতে না পারেন, সেজন্য তাদেরও ভয়ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে। হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে বিএনপি অধ্যুষিত এলাকায় পুলিশি হয়রানি বাড়ানো হয়েছে।

সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভোটাররা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে মন্তব্য করে রিজভী বলেন, বাহির থেকে সন্ত্রাসীদের নিয়ে এসে রাজশাহীর সব আবাসিক হোটেলগুলো ভরে ফেলা হয়েছে। শহরের ছাত্রাবাসগুলো থেকেও শিক্ষার্থীদের বের করে দিয়ে সেখানে সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছে।

‘আবারও সংলাপের সুযোগ হাতছাড়া করল বিএনপি’- এ শিরোনামে পত্রিকায় প্রকাশিত একটি সংবাদের প্রতিবাদ জানান রিজভী। তিনি বলেন, সরকারসমর্থিত কিছু গণমাধ্যম উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বিভ্রান্তি ছড়ানোর জন্য এসব সংবাদ প্রচার করছে। ওই সংবাদ শুধু উদ্দেশ্যপ্রণোদিতই নয়, পরিকল্পিতও। জনগণ এ বিভ্রান্তিতে কান দেবে না।

ঘটনাপ্রবাহ : রাজশাহী-বরিশাল-সিলেট সিটি নির্বাচন ২০১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter