ক্যান্সারের বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধসহ গ্রেফতার ৩

কাস্টমসের অসাধু কর্মকর্তাদের সহায়তায় চীন থেকে আনা হতো এসব ওষুধ : পুলিশ

  যুগান্তর রিপোর্ট ৩০ ডিসেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ওষুধ

রাজধানীর পুরান ঢাকার তাঁতীবাজার থেকে ক্যান্সার চিকিৎসার বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি এ অভিযান চালায়।

ইলেকট্রুনিক্স সামগ্রী আমদানির আড়ালে কাস্টমসের অসাধু কর্মকর্তাদের সহায়তায় এসব নকল ওষুধ আনা হতো বলে জানিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতার তিনজন হল- রুহুল আমিন ওরফে দুলাল চৌধুরী (৪৬), নিখিল রাজবংশী (৪৪) ও মোহাম্মদ সাঈদ (৪৫)।

এ সময় তাঁতীবাজার এলাকায় গ্রেফতারদের গোডাউন থেকে এমটিএক্স, ক্লোমাইড ও রিভোকন নামে তিন ধরনের ৪০ হাজার পাতা নকল ওষুধ জব্দ করা হয়।

শুক্রবার প্রেস ব্রিফিংয়ে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্লা নজরুল ইসলাম এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে নকল ওষুধের ব্যবসা করছিল। তারা চীন থেকে অবৈধ উপায়ে নকল ওষুধ আমদানি করে দেশের বাজারে ছড়িয়ে দিত।

দেড় মাস আগে এমন অভিযোগ পেয়ে অনুসন্ধানে নামে সিআইডি। এরপর বৃহস্পতিবার তাঁতীবাজার থেকে এদের গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা হয়েছে।

মোল্লা নজরুল বলেন, জব্দ করা নকল ওষুধের প্রতি পাতা ট্যাবলেট তৈরি ও আমদানিসহ ব্যয় হতো ১২ টাকা। দেশে এসব ওষুধের প্রতি পাতা খুচরা বাজারে দুই থেকে তিনশ’ টাকায় বিক্রি হতো। ওষুধগুলো তারা এজেন্টদের কাছে ৮০-৯০ টাকায় বিক্রি করত।

ইলেকট্রুনিক্স সামগ্রী আমদানির আড়ালে কাস্টমসের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তার সহায়তায় চক্রটি কনটেইনারে করে এসব নকল ওষুধ আমদানি করত বলে জানান মোল্লা নজরুল। তিনি বলেন, গ্রেফতাররা প্রায়ই চীনে যাতায়াত করে।

সেখানে গিয়ে চাহিদা অনুযায়ী ভেজাল ওষুধ তৈরির অর্ডার করে। ক্যালসিয়াম ক্লোরাইডসহ নিন্মমানের উপাদান দিয়ে ক্যান্সারসহ বিভিন্ন জটিল রোগের এসব নকল ওষুধ তৈরি করা হয়।

মোল্লা নজরুল বলেন, নকল ওষুধগুলো এনে তাঁতীবাজার এলাকার একটি গোডাউনে রাখত। তারপর ডিস্ট্রিবিউটরদের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন বাজারে ছড়িয়ে দিত। তিনি বলেন, চক্রের বিরুদ্ধে কাজ শুরু হয়েছে, আমরা এটি শেষ করতে চাই।

গ্রেফতারদের বিষয়ে তিনি বলেন, তারা মূলত জুয়াড়ি। বিভিন্ন ক্যাসিনোতে জুয়া খেলতে গিয়ে তাদের পরিচয়। এরপর পরস্পরের যোগসাজশে চীন থেকে ভেজাল ওষুধ তৈরি করে আমদানির পরিকল্পনা করে। আমরা এর সঙ্গে জড়িত কয়েকজনের নাম পেয়েছি, গ্রেফতারদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানান মোল্লা নজরুল ইসলাম।

চীনের কোন কোম্পানির কাছে তারা ওষুধ তৈরির অর্ডার দিত- সে বিষয়ে আরও পদক্ষেপ নিতে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে জানান মোল্লা নজরুল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter