ক্ষমা চাইলে আ’লীগের সঙ্গেও ঐক্য হতে পারে

-মোশাররফ

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন
ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বিরোধী দলগুলোর গড়া জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় যোগ দিতে হলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকেও ৫টি দাবি মানতে হবে। যদি আওয়ামী লীগ জাতীয় ঐক্যে আসতে চায়, জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়ে তাদের দাবি মেনে নিয়েই আসতে হবে। তখনই তাদেরকে (আওয়ামী লীগ) জাতীয় ঐক্যে স্বাগত জানানো হবে।

রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে সোমবার এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেলের মুক্তির দাবিতে সভার আয়োজন করে ‘নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টু স্মৃতি সংসদ’। সংগঠনটির সভাপতি সাঈদ হাসান মিন্টুর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, নিপুন রায় চৌধুরী প্রমুখ।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগকে ছাড়া কিভাবে জাতীয় ঐক্য হবে?’ জাতীয় ঐক্য হচ্ছে জনগণের দাবিগুলোকে নিয়ে যা বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ইতিমধ্যে গ্রহণ করেছে, ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। সেই পাঁচটি দফা- আগামী নির্বাচনের তফসিলের আগে সংসদ ভেঙে দেয়া, সরকারের পদত্যাগ, নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠন, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন, ইভিএম বাদ, সামরিক বাহিনী মোতায়েন- এসব বিষয়ে জনগণের সঙ্গে একমত হয়ে ঘোষণা দিলে তাদেরকেও জাতীয় ঐক্যে অন্তর্ভুক্ত করব, স্বাগত জানাব। তাছাড়া হতে পারে না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ জোর করে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য আজকে ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে তাদের সব ষড়যন্ত্রকে মোকাবেলা করে এ দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার হবে। জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা হবে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে কালো আইন হিসেবে অভিহিত করে তিনি বলেন, সরকার গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করতে এই কালো আইন করেছে। সংবাদ মাধ্যমের অবশিষ্ট স্বাধীনতাকে খর্ব করার জন্য, মুখ তালাবদ্ধ করে দেয়ার জন্য এই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করেছে।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, দেশে এক ভয়াবহ পরিস্থিতি ?সৃষ্টি করেছে এই সরকার। যেখানে নির্বাচনের আগে সব দলকে সমান সুযোগ করে দেয়া হয়, সেখানে আওয়ামী লীগের যারা প্রতিদ্বন্দ্বী তাদের সবাইকে বন্দি করে তারা নির্বাচন করবে। এটা হাস্যপ্রদ, এটা অসম্ভব। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো বারবার দেশের জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করা যাবে না। এ ব্যাপারে নেতাকর্মীদের সংগ্রামের জন্য প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×