পেঁয়াজচাষীদের উৎসাহ দিন

  যুগান্তর ডেস্ক    ০৬ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পেঁয়াজের চড়া দামের কারণে এবার সীমিত ও স্বল্প আয়ের ভোক্তাদের বেশ কিছুদিন দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। সবাই আশা করেছিল, বাজারে দেশি নতুন পেঁয়াজ এলে এ নিত্যপণ্যটির দাম কমে আসবে। কিন্তু বাস্তবে লক্ষ করা যাচ্ছে, বাজারে নতুন পেঁয়াজ উঠলেও এর দাম এখনও স্বাভাবিক পর্যায়ে নেমে আসেনি। খুচরা পর্যায়ে একবার দাম কিছুটা কমলেও আবার বাড়তে শুরু করে। ভরা মৌসুমেও পেঁয়াজের বাজার অস্থির হওয়ায় অনেক ভোক্তা ক্ষুব্ধ। এর মূল কারণ অনুসন্ধান করে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া না হলে অন্য যে কোনো নিত্যপণ্যের দামও হঠাৎ বেড়ে যেতে পারে। এতে স্বল্প আয়ের ভোক্তাদের দুর্ভোগ বাড়বে। মধ্যস্বত্বভোগীদের কারণে যাতে কোনো নিত্যপণ্যের দাম হঠাৎ বেড়ে যেতে না পারে, এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষকে বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে হবে। বস্তুত তদারকি জোরদার না করলে অসাধু ব্যবসায়ীদের কারসাজি বন্ধ হবে না। এবার বাজারে দেশি নতুন পেঁয়াজের পাতাও চড়া দামে বিক্রি হয়েছে।

চাহিদা মেটাতে এবার বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। বিদেশি পেঁয়াজ কিছুটা কম দামে বিক্রি হলেও অনেক ভোক্তা বেশি দামে দেশি পেঁয়াজ ক্রয় করেছে। এর মূল কারণ দেশি পেঁয়াজের গুণগতমান ভালো। অতিরিক্ত আমদানির কারণে দেশের পেঁয়াজ চাষীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হন এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষকে বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে হবে। দেশের পেঁয়াজ চাষীরা যাতে ন্যায্য দাম পান এটা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে।

আরিফ রহমান

উত্তরা, ঢাকা

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×