কবিতা

কোন এক সুরতোলা নদী

  ফারুক আহমেদ ২৬ জুন ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কোন এক সুরতোলা নদী থেকে উঠে এসে আমার পাশে দাঁড়ালে

বঙ্কিম যেমন কৃষ্ণে, বুদ্ধদেব যুধিষ্ঠিরে কবির প্রজ্ঞায় এলে-

বৃষ্টি গেঁথে গেঁথে তৈরি হয় শিল্পের শহর, মুগ্ধতার ঘনঘটা;

তুমি হাত ধরে নিয়ে দিলে অধরআকুল তোমার আলোকচ্ছটা।

নগরপাপড়ি ফুটে, একটি বেহালা সুর ধরে সন্ধ্যাসঙ্গীতের

তুমি হর্নের উদ্যান থেকে সরিয়ে বিছিয়ে দাও অভোগ-বোধের।

মানুষ কীভাবে লিখে অনুভূতি-অভিযান, কাটে শহরে সাঁতার

একটি অনন্ত তৃষ্ণা তোমার নামের মতো ডেকে ওঠে বার বার।

ঝাউবনের ভেতর চঞ্চল হওয়া দুপুরের রেখা

হাঁটছে, হাঁটছে শুধু, ডুমুরের, মানুষের মতো একা।

একটি বিন্দু বা রেখা বড় হতে হতে কত বড় হয়!

পঙ্গপালেরা গাইছে প্রেমের গান, করে দিগ্বিজয়;

আমি তাহলে কোথায় যাব, তুমি তবে কীভাবে আসবে

সাঁকোগুলো ভাঙা, প্রতিদিন পৃথিবী আসে নতুনভাবে।

কোথাও কি হাসিজুড়ে এক নদী জায়গা করে নিয়েছে

কোথাও কি কোন বালক ছুটছে সে নদীর পিছে পিছে।

কোথাও কি গান, স্পর্শ, কবিতা বা আরাধনা একাকার-

একবার মনে হয় আমার, আরেকবার মনে হয় তোমার!

আরও খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত