শ্রেণীকক্ষে ছাত্রের চুলকর্তন

দেশীয় অস্ত্র নিয়ে স্কুলে হামলা অভিভাবকদের

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি ০৭ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

হামলা

ঢাকার ধামরাইয়ে বারবার তাগিদ দেয়ার পরও ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্র চুল না কাটায় সোমবার শিক্ষক শ্রেণীকক্ষের ভেতর কাঁচি দিয়ে তার মাথার চুল কেটে দেন। খবরটি ওই স্কুলছাত্রের পরিবারের লোকজন জানতে পেরে লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটিতে হামলা চালায়।

এলাকাবাসী পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তুললে ওই শিক্ষকসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা প্রাণে রক্ষা পান। উল্টো এ ব্যাপারে হামলাকারীরা ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের বিবাদী করে ধামরাই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে বলে জানা গেছে।

সরেজমিন গেলে এলাকাবাসী জানায়, জলশীন এলোকেশী উচ্চবিদ্যায়ের খণ্ডকালীন শিক্ষক সাদ্দাম হোসেন ৬ মাস ধরে ৭ম শ্রেণীর ৭৩ ছাত্রকে মাথার চুল ছেঁটে খাটো করতে বলেন। শিক্ষকের পকেটের টাকা দিয়ে পর্যায়ক্রমে ৭১ ছাত্র মাথার চুল ছাঁটলেও আবির হোসেন ও সাজ্জাদ হোসেন চুল ছাঁটেনি। সোমবার দুপুরে ওই শ্রেণী শিক্ষক দুই ছাত্রকে টাকা দেন স্থানীয় স্যালুনে গিয়ে চুল ছাঁটাতে। আবির হোসেন রাজি হলেও সাজ্জাদ হোসেন চুল ছাঁটাতে রাজি না হয়ে উল্টো শিক্ষকের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে শিক্ষক সাদ্দাম ওই শিক্ষার্থীর মাথার সামনের চুল কেটে দিয়ে স্যালুন থেকে পুরো চুল ছাঁটাতে বলেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে ওই স্কুলছাত্রের মামা আবেদ আলী লাঠিসোটাসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অর্ধশতাধিক লোক নিয়ে অতর্কিত হামলা করে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। খবর পেয়ে এলাকাবাসী সংঘবদ্ধ হয়ে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের রক্ষা করে। এলাকাবাসীর প্রতিরোধের মুখে হামলাকারীরা ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে পিছু হঠলেও তারা শিক্ষক সাদ্দাম হোসেনের বাড়িতে গিয়েও হামলা চালায়।

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক সৈয়দ মো. হান্নান ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, ক্লাসরুমে ছাত্রছাত্রীদের সামনে এক ছাত্রের এভাবে চুল কেটে দেয়া ঠিক হয়নি। তাই অভিভাবকরা ক্ষুব্ধ হয়ে লাঠিসোটা নিয়ে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আসে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×