চকরিয়ায় এক ব্যক্তির চোখ উৎপাটন
jugantor
চকরিয়ায় এক ব্যক্তির চোখ উৎপাটন

  চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

২৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বদরখালীতে আবদুল কাদের নামের এক ব্যক্তির দুই চোখ উপড়ে নিয়েছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। শনিবার বিকালে বদরখালী ইউনিয়নের ৩নং ব্লকের ঠুট্যাখালী এলাকার খালকাচা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। আবদুল কাদের ওই এলাকার আবদুচ ছোবাহানের ছেলে।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের সোর্স ও থানার দালালি করে আসছেন। তাকে প্রথমে চকরিয়া হাসপাতাল ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, আবদুল কাদের দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের সোর্স ও থানার কিছু কর্মকর্তাকে হাত করে দালালি করে আসছেন। সে সুবাদে তিনি কারণে-অকারণে এলাকার বহু নিরীহ মানুষকে বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করেন। এতে ওই এলাকার মানুষ তার বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। শনিবার বিকালে আবদুল কাদের বদরখালী বাজারে যাওয়ার পথে খালকাচা পাড়ায় স্থানীয় জনতা তার দুই চোখ উপড়ে নেয়।

বদরখালী নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির আইসি এসআই মং থোয়াই হ্লা চাক বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। আবদুল কাদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আবদুল কাদেরের পরিবারের সদস্যরা দাবি করেন, জমির বিরোধের জের ধরে তার ভাতিজারা তার চোখ উপড়ে নিয়েছে।

চকরিয়ায় এক ব্যক্তির চোখ উৎপাটন

 চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
২৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বদরখালীতে আবদুল কাদের নামের এক ব্যক্তির দুই চোখ উপড়ে নিয়েছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। শনিবার বিকালে বদরখালী ইউনিয়নের ৩নং ব্লকের ঠুট্যাখালী এলাকার খালকাচা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। আবদুল কাদের ওই এলাকার আবদুচ ছোবাহানের ছেলে।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের সোর্স ও থানার দালালি করে আসছেন। তাকে প্রথমে চকরিয়া হাসপাতাল ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, আবদুল কাদের দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের সোর্স ও থানার কিছু কর্মকর্তাকে হাত করে দালালি করে আসছেন। সে সুবাদে তিনি কারণে-অকারণে এলাকার বহু নিরীহ মানুষকে বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করেন। এতে ওই এলাকার মানুষ তার বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। শনিবার বিকালে আবদুল কাদের বদরখালী বাজারে যাওয়ার পথে খালকাচা পাড়ায় স্থানীয় জনতা তার দুই চোখ উপড়ে নেয়।

বদরখালী নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির আইসি এসআই মং থোয়াই হ্লা চাক বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। আবদুল কাদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আবদুল কাদেরের পরিবারের সদস্যরা দাবি করেন, জমির বিরোধের জের ধরে তার ভাতিজারা তার চোখ উপড়ে নিয়েছে।