আজ এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

এসএসসি

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আজ। এতে অংশ নিচ্ছে ১৭ লাখ ৩৯ হাজার ৫৭৩ জন পরীক্ষার্থী। নবম শ্রেণীতে ২১ লাখ ১৪ হাজার ২২২ জন ভর্তি হয়েছিল। বাকিরা শিক্ষার স্রোতধারা থেকে হারিয়ে গেছে। মাত্র দু’বছরে মাধ্যমিকে প্রায় পৌনে ৪ লাখ ছাত্রছাত্রী ঝরে পড়েছে।

এসএসসি পরীক্ষা সামনে রেখে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বুধবার সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। তাতে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ঝরেপড়া প্রসঙ্গে বলেন, ‘কোনো শিক্ষার্থী ঝরে পড়–ক- তা আমরা চাই না। এ জন্যই বিনামূল্যে পাঠ্যবই বিতরণ, মোটের ওপর ৪০ শতাংশ ছাত্রছাত্রীকে উপবৃত্তি প্রদান, মেধাবৃত্তি, অতিরিক্ত ক্লাসের ব্যবস্থাসহ নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।’

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তপন কুমার সরকার অবশ্য বলেন, ‘নিবন্ধিত যেসব ছাত্রছাত্রীকে আমরা পরীক্ষায় পাচ্ছি না তারা সবাই যে ঝরে পড়েছে তেমনটি বলা যাবে না। কেননা, এদের মধ্যে কিছু হয়ত কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষায় ভিড়ে গেছে। কিছু নবম শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হতে পারেনি। টেস্ট পরীক্ষার বাছাইয়ে কিছু বাদ পড়েছে। বরং এসব ছাত্রছাত্রীকে লেখাপড়ার মধ্যে আছে বলা যায়।’

ফেসবুক বন্ধে অবস্থা অনুযায়ী ব্যবস্থা : দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এসএসসি পরীক্ষায় যাতে কেউ প্রশ্নফাঁস করে ছড়িয়ে দিতে না পারে সেজন্য ফেসবুক বন্ধের কথা এসেছে। এ ব্যাপারে ‘অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা’ নেয়া হবে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) সঙ্গে কথা হয়েছে। বিটিআরসির চেয়ারম্যানসহ অন্য যারা আছেন, তাদের সঙ্গেও কথা বলা হয়েছে। তাদের সমস্যাটি বলা হয়েছে।’

প্রশ্নফাঁস রোধে ১১ ব্যবস্থা : প্রশ্নফাঁস রোধে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ১১ ব্যবস্থা নিয়েছে। এর মধ্যে আছে- পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে অবশ্যই নিজের নির্ধারিত আসনে বসতে হবে ছাত্রছাত্রীকে। এক্ষেত্রে যানজট বা কোনো অজুহাত গ্রহণযোগ্য হবে না। পরীক্ষা চলাকালীন কেন্দ্র সচিব কেবল মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। সেটি হবে ফিচার মোবাইল বা ক্যামেরাবিহীন। তবে সেই ফোন নিয়ে তিনি কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। থাকবে অফিসে কক্ষে। এছাড়া কেন্দ্রে শিক্ষক-ছাত্র যার কাছেই ফোন পাওয়া যাবে তাকে তাৎক্ষণিকভাবে বহিষ্কার করা হবে। কেন্দ্রে মোবাইল ফোন, মোবাইল ফোনের সুবিধা সংবলিত ঘড়ি, কলমসহ যে কোনো ইলেকট্রুনিক্স ডিভাইস ব্যবহার নিষিদ্ধ থাকবে। ট্রেজারি বা থানা থেকে প্রশ্নপত্র সংগ্রহকারী কোনো শিক্ষকের কাছে মোবাইল ফোন থাকতে পারবে না। এ ধরনের ব্যক্তিদের তল্লাশির পর প্রশ্নপত্র হাতে দেয়া হবে।

পরীক্ষার্থী : আজ এসএসসি ও এসএসসি ভোকেশনালে বাংলা প্রথমপত্র পরীক্ষা। মাদ্রাসা বোর্ডের দাখিলে নেয়া হবে কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ পরীক্ষা। সংবাদ সম্মেলনে জানানো তথ্যমতে, আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডসহ মোট ১০ বোর্ডে এবার পরীক্ষার্থী ২০ লাখ ৩১ হাজার ৮৯৯ জন। এর মধ্যে শুধু আট বোর্ডের এসএসসি পরীক্ষার্থী ১৬ লাখ ২৭ হাজার ৩৭৮ জন। সারা দেশে মোট ৩ হাজার ৪১২টি কেন্দ্রে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আজ শুরু হওয়া এ পরীক্ষা শেষ হবে ২৫ ফেব্রুয়ারি। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে এসএসসি ও দাখিলে ছাত্রী সংখ্যা বেশি। এবার এসএসসিতে ৭ লাখ ৯২ হাজার ৩৪৪ জন ছাত্র ও ৮ লাখ ৩৫ হাজার ৩৪ জন ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। দাখিলে ছাত্র ১ লাখ ৪৩ হাজার ৬৪৮ জন ও ছাত্রী ১ লাখ ৪৬ হাজার ১০৪ জন। আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীন এসএসসি ভোকেশনালে ছাত্র ৮৭ হাজার ২২০ জন ও ছাত্রী ২৭ হাজার ৫৪৯ জন।

ঘটনাপ্রবাহ : এসএসসি-১৮

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.