সংরক্ষিত নারী আসন

প্রথম দিনে ৬০৫টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি আ’লীগের

আয় ১ কোটি ৮১ লাখ ৫০ হাজার টাকা

প্রকাশ : ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে মঙ্গলবার সকাল থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র বিক্রি করে দলটি।

প্রথম দিনে ৬০৫টি মনোনয়নপত্র বিক্রি হয়েছে। সে হিসাবে প্রথম দিনে মনোনয়নপত্র বিক্রি করে আওয়ামী লীগ আয় করেছে ১ কোটি ৮১ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া মঙ্গলবার যুগান্তরকে বলেন, প্রথম দিনে আনন্দ-উল্লাসে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নারীরা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

দেশের ও সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখা নারী নেত্রীদের অনেকেই মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এছাড়া দলের দুর্দিনে অবদান রাখা যোগ্যতাসম্পন্ন নেত্রীরাও আছেন মনোনয়ন সংগ্রহ তালিকায়। তিনি বলেন, প্রথম দিনে বিকাল ৬টা পর্যন্ত ৬০৫টি মনোনয়নপত্র বিক্রি হয়। প্রতিটি মনোনয়নপত্রের শুভেচ্ছা মূল্য ছিল ৩০ হাজার টাকা।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র ফরম বিক্রির কার্যক্রম উদ্বোধন করেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ঢাকা দক্ষিণ মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী নার্গিস রহমানকে ফরম দেয়ার মাধ্যমে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সদস্য এসএম কামাল, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

ফরম সংগ্রহ করে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কৃষিবিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী বলেন, আমাদের দেশে পুরুষের পাশাপাশি এখন নারীরাও রাজনীতিতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। নারীরা ঘর-সংসার, ছেলেমেয়ে সবাইকে সামাল দিয়ে, সবার চাহিদা পূরণ করে বিভিন্ন, মিটিং, মিছিল, সভা ও সমাবেশে অংশগ্রহণ করছে। তিনি বলেন, আমি মনে করি, সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে পারলে সংসদে জনগণের প্রত্যাশা পূরণে জরুরি ভূমিকা রাখতে পারব।

যুব মহিলা লীগের নেত্রী নাজমা আক্তার বলেন, সংরক্ষিত আসনে কাজ করার সুযোগ কম থাকলেও এর মধ্যে দিয়েই নারীদের এগিয়ে নিতে কাজ করতে হবে। নারীরা সংসদ-সংসার দুটোই সামাল দিতে পারে।

প্রথম দিনে অন্যান্যের মধ্যে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী। ২০০৮ সালের নারায়ণগঞ্জ থেকে তিনি নির্বাচিত সংসদ সদস্য ছিলেন।

মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের পর সারাহ বেগম কবরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসে বলীয়ান হয়ে একবার জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। এবারও আমার বিশ্বাস যে তিনি আমাকে সুযোগ দেবেন।

একাদশ সংসদে সংরক্ষিত আসনের সদস্য হতে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র কিনেছেন ২০০১ সালের ভোটে বিএনপি-জামায়াত জোটের জয়ের পর ধর্ষণের শিকার পূর্ণিমা রানী শীল। মনোনয়নপত্র কিনেছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী প্রয়াত মাহবুবুল হক শাকিলের স্ত্রী নীলুফার আনজুম পপি। নারী আসনে মনোনয়নপত্র কিনে ব্যারিস্টার ওলোরা আফরিন বলেন, দীর্ঘদিন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে আছি। দলীয় সভানেত্রীর কাছে আমি সংরক্ষিত মহিলা আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি।

এছাড়া মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা ক্রীক, নার্গিস রহমান, খালেদা খানম, শামীম সুলতানা, আসমা আকতার রুনা, বনশ্রী বিশ্বাস স্মৃতিকণা প্রমুখ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।