সুবর্ণচরে গণধর্ষণ

১৭ দিন পর বাড়ি ফিরলেন গৃহবধূ

  যুগান্তর রিপোর্ট, নোয়াখালী ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

১৭ দিন পর বাড়ি ফিরলেন গৃহবধূ

সুবর্ণচর উপজেলায় ৩০ ডিসেম্বর রাতে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ ১৭ দিনের চিকিৎসা শেষে বৃহস্পতিবার বাড়ি ফিরেছেন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেও নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছেন গৃহবধূ ও তার পরিবারের সদস্যরা।

পুলিশ জানায়, বেলা দেড়টার দিকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল ছেড়ে যান ওই গৃহবধূ। বেলা ৩টার দিকে তিনি গ্রামের বাড়িতে পৌঁছান। এ সময় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিদর্শক জাকির হোসেনের নেতৃত্বে ডিবির একটি দল তার সঙ্গে যায়।

নিরাপত্তা সংক্রান্ত যে কোনো সমস্যায় পুলিশের সঙ্গে তাৎক্ষণিক যোগাযোগ করতে জাকির ওই পরিবারের সদস্যদের পরামর্শ দেন। চরজব্বর থানার নতুন ওসি মো. শাহেদ উদ্দিন জানান, নিরাপত্তা নিয়ে পরিবারটির শঙ্কায় থাকার কোনো কারণ নেই।

বুধবার নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গৃহবধূর শারীরিক পরীক্ষা শেষে তাকে ছাড়পত্র দেয়। তাকে ২ ফেব্রুয়ারি হাসপাতালে এসে অর্থোপেডিকের মেডিকেল বোর্ডে হাজির থাকতে পরামর্শ দেয়া হয়। এছাড়া অন্য কোনো সমস্যা হলে তার যথাযথ চিকিৎসার আশ্বাস দেন চিকিৎসকরা।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম যুগান্তরকে জানান, ১৭ দিনের চিকিৎসায় ওই গৃহবধূ এখন বেশ সুস্থ। তিনি নিজেই একা হাঁটাচলা করতে পারছেন। শরীরের যেসব স্থানে ফোলা-জখম ছিল, সেগুলোও অনেকটা ভালো হয়ে গেছে। তার হাত ভেঙে গেলেও মানসিকভাবে সুস্থ আছেন। স্বাভাবিকভাবে খাওয়া-দাওয়াও করতে পারছেন। মহিউদ্দিন আরও জানান, মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। গৃহবধূর স্বামী বলেন, স্ত্রীর অবস্থা এখন ভালো। সে নিজেই বাড়ি যেতে চায়। তবে এলাকার কিছু লোক ‘সরকার-প্রশাসন কয়দিন থাকবে’ বলে তাকে হুমকি দিচ্ছে।

৩০ ডিসেম্বর রাতে স্বামী-সন্তানদের বেঁধে ওই গৃহবধূকে মারধর ও ধর্ষণ করা হয়। পরদিন ৩১ ডিসেম্বর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। একই দিন তার স্বামী চরজব্বর থানায় মামলা করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×