দেওয়ানগঞ্জে টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় নামায় বখাটেরা

স্কুলছাত্রীর দু’হাত ব্লেডের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত

  দেওয়ানগঞ্জ প্রতিনিধি ০৩ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আঘাত

এ কেমন বর্বরতা! মেয়েরা কি স্কুলে যেতে পারবে না? দেওয়ানগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বখাটেদের ব্লেডের আঘাতে আহত স্কুলছাত্রীকে দেখতে আসা লোকজন ক্ষোভ প্রকাশ করে এ কথাগুলো বলছিলেন। শনিবার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চুকাইবাড়ি ইউনিয়নের যমুনা নদী তীরবর্তী হলকারচর গ্রামের বাদশা মিয়ার মেয়ে দেওয়ানগঞ্জ বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী বিথি আক্তার। স্কুলে যাওয়ার জন্য অটোরিকশায় বাড়ি থেকে রওনা হয়।

অটোরিকশাটি রামপুরা সড়কে এলে ৫-৬ জন বখাটে যুবক অটোরিকশার গতিরোধ করে ছাত্রীটিকে টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় নামায়। স্কুল ড্রেসের ওপর সাদা এপ্রোন খুলে নিয়ে মুখে জোরপূর্বক তরল পানীয় খাওয়ায়। একপর্যায়ে ছাত্রীটির দুই হাতের কব্জির ওপর ব্লেড দিয়ে উপর্যুপরি আঘাতে আহত করে। এ সময় পথচারীরা মেয়েটিকে উদ্ধার করে দেওয়ানগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

আহত বিথি জানান. বাড়ি থেকে অটোরিকশা দিয়ে স্কুলে যাওয়ার পথে রামপুরা সড়কে প্যান্ট-শার্ট পরিহিত ৫-৬ জন যুবক অটোরিকশা থামিয়ে তাকে টানাহেঁচড়া করে সড়কে নামিয়ে মুখে পানির মতো কি যেন খাওয়ায় এবং স্কুল ড্রেসের ওপর সাদা এপ্রোন খুলে নেয়। অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে- যা মুখে প্রকাশ করা যায় না। দু’হাতের কব্জির ওপরে ধারালো ব্লেড দিয়ে আঁচড় দেয়।

তাকে কেউ বিরক্ত বা উত্ত্যক্ত করত কিনা জিজ্ঞাসা করা হলে ছাত্রীটি জানায় আমার সঙ্গে কারও কোনো সম্পর্ক নেই। বখাটেদের আমি চিনি না। সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা, মডেল থানার পুলিশ, জনপ্রতিনিধি ও সাংবাদিকরা মেয়েটিকে দেওয়ানগঞ্জ হাসপাতালে দেখতে আসেন। দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ওসি আমিনুল হক জানান, তিনি নিজে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। দুর্বৃত্তদের এলাকায় কেউ চিনে না। এ বিষয়ে কোনো মামলা হয়নি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×