বাগমারায় অপরিকল্পিত পুকুর খনন ও বাঁধ

জলাবদ্ধতায় হুমকিতে ৫শ’ একর জমির বোরো চাষ

  রাজশাহী ব্যুরো ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চলছে বোরো চাষের ভরা মৌসুম। কৃষক জমি তৈরি এবং চারা রোপণের কাজে ব্যস্ত রয়েছেন। রাজশাহী অঞ্চলের অন্য এলাকার কৃষকরা চাষাবাদে ব্যস্ত সময় কাটালেও সমস্যার মধ্যে পড়েছেন জেলার বাগমারা উপজেলার কয়েক হাজার কৃষক। উপজেলার যসের বিলে জলাবদ্ধতার কারণে এখনও পাঁচশ একর জমিতে শুরু হয়নি বোরো চাষ। এর ফলে কৃষকদের মধ্যে ক্ষোভ এবং হতাশা বিরাজ করছে।

এলাকার ভুক্তভোগী কৃষকরা জানান, বাগমারার পূর্ব এলাকার হামিরকুৎসা, গোয়ালকান্দি, যোগিপাড়া ইউনিয়ন এবং নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার কিছু অংশজুড়ে রয়েছে যসের বিল। বিলের পানি প্রবাহের কয়েকটি স্থানে অপরিকল্পিত পুকুর খনন, বিভিন্ন ব্রিজ ও কালভার্টের মুখ বন্ধ করা, বিলের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত দাঁড়ার (পানি নামার পথ) মুখ বন্ধ করে সেখানে মাছ চাষ এবং বিভিন্ন স্থানে অপরিকল্পিত বাঁধ নির্মাণের কারণে এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে ওই বিলের প্রায় পাঁচশ একর জমি জলাবদ্ধতার কবলে পড়েছে। সেখানে এখনও রয়েছে হাঁটুপানি। এমনকি কোথাও কোমর পানিও রয়েছে। ফলে কৃষকরা বোরো চাষ শুরু করতে পারছেন না। এসব জলাশয়ে স্থানীয় প্রভাবশালীদের মদদে মৎসজীবীরা মাছ চাষ করছেন।

গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ খাঁ বিলের এ জলাবদ্ধতাকে মানবসৃষ্ট কৃত্রিম সংকট দাবি করে জানান, প্রভাবশালীরা নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির কারণে কয়েক হাজার কৃষককে জিম্মি করে বিলের পানি প্রবাহের পথ বন্ধ করে দিয়ে সেখানে মাছ চাষ করছেন। জিম্মি কৃষকদের পক্ষে তিনি পানি নামার পথ উš§ুক্ত করে দিতে বিলে নামতে গেলে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়েছে।

গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আলমগীর সরকার বলেন, বিলের জলাবদ্ধতা নিরসনে উদ্যোগ নিয়ে কৃষকদের সঙ্গে বিলে নেমেছি। কয়েকটি স্থানের বাঁধ কেটে পানি নামার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে অপরিকল্পিত কিছু পুকুর খননের কারণে পানি প্রবাহে বাধার সৃষ্টি হচ্ছে। এসব পুকুরের মালিক অত্যন্ত প্রভাবশালী। আমরা প্রশাসনের সহায়তা চেয়েছি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রাজিবুর রহমান বলেন, আমার একার পক্ষে জলাবদ্ধতা নিরসন করা সম্ভব নয়। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। তিনি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকিউল ইসলাম জানান, বিলের পূর্ব এলাকা নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার কয়েকটি স্থানে নির্মিত বাঁধের কারণে পানি নামতে সমস্যা হচ্ছে। এ বিষয়ে নলডাঙ্গার ইউএনওর সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা পানি নামার ব্যবস্থা করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন। এছাড়া বিলের যেসব স্থানে অপরিকল্পিত বাঁধ এবং পুকুরের কারণে পানি নামতে সমস্যা হচ্ছে তা নিরসন করার জন্য অতিদ্রুত ঘটনাস্থলে সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) যাওয়ার জন্য বলেছি। প্রয়োজনে আমি নিজেও সেখানে যাব এবং বিলের জলাবদ্ধতা নিরসনে প্রয়োজনীয় সব ধরনের উদ্যোগ নেয়া হবে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.