মধ্যপাড়া খনিতে ১৬ দিন পাথর তোলা বন্ধ

কমছে বিক্রয় মূল্য

  পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ২০ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মধ্যপাড়া খনিতে ১৬ দিন পাথর তোলা বন্ধ

মধ্যপাড়া খনিতে পাথর তোলার যন্ত্র বিকল হওয়ায় ১৬ দিন ধরে কাজ বন্ধ রয়েছে।

খনির পাথর তোলার কাজে ব্যবহৃত উইন্ডিং মেশিনের গিয়ার বক্সের পিনিয়াম ভেঙে যায়। যে কারণে ৩ এপ্রিল রাত থেকে পাথর তোলা বন্ধ হয়ে যায়।

এছাড়া বছরখানেক ধরে খনির পাথর বিক্রিতে গতি নেই। পাথর তোলা ও বিক্রি বন্ধ থাকায় খনি সারফেস ভাগের হার্ডরক ইয়ার্ডে পাথরের স্তূপ জমেছে।

ফলে দেশীয় বাজারে পাথরের মূল্যও কমছে। কবে নাগাদ পাথর তোলা শুরু হবে এ ব্যাপারে এখন কিছু বলতে পারছে না খনি কর্তৃপক্ষ।

সূত্র জানায়, চীন থেকে আমদানি করা বিকল মেশিনটি মেরামত করতে কতদিন সময় লাগবে এবং কবে নাগাদ পাথর তোলা শুরু হবে সেটি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

খনির উৎপাদন ব্যবস্থার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জিটিসি উইন্ডিং মেশিন সরবরাহকারী চীনা কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করে গিয়ারবক্স মেরামতের উদ্যোগ নিয়েছে।

বর্তমানে খনি ইয়ার্ডে বিভিন্ন সাইজের প্রায় ৬ লাখ টন পাথরের মজুদ রয়েছে। এ অবস্থায় পাথর বিক্রিতে গতি আনতে পাথরের মূল্য কমানোর উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।

খনি কর্তৃপক্ষ বলছে, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৬ চাকার গাড়িতে ট্রাকসহ ২২ টনের বেশি এবং ১০ চাকার গাড়িতে ট্রাকসহ ৩০ টনের বেশি মালামাল পরিবহন করা যাবে না।

সরকারি এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে গিয়েই খনির পাথর বিক্রি কমে গেছে। ট্রাক মালিক ও চালকরা আগে যেখানে ৬ চাকার ট্রাকে ২০ থেকে ২৫ টন এবং ১০ চাকার ট্রাকে ৪ থেকে ৪১ টন পাথর পরিবহন করতে পারত বর্তমানে সেখানে একই ভাড়ায় ৬ চাকার ট্রাকে ১৫ থেকে ১৬ টন এবং ১০ চাকার ট্রাকে ১৯ থেকে ২০ টনের বেশি পাথর পরিবহন করতে পারছে না। এ কারণেই খনি কর্তৃপক্ষ ক্রেতা হারিয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×