সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা: দ্বিতীয় ধাপেরও প্রশ্ন ফাঁস!

পটুয়াখালীতে ডিসির উমেদারসহ ১২ জনকে কারাদণ্ড ও একজনকে অর্থদণ্ড * ৩৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা: দ্বিতীয় ধাপেরও প্রশ্ন ফাঁস!

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগে দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিন দেশের ২৬ জেলায় একসঙ্গে এ পরীক্ষা নেয়া হয়।

এর মধ্যে পটুয়াখালী থেকে প্রশ্ন ফাঁস ও পরীক্ষাসংক্রান্ত অপরাধে জড়িত থাকার দায়ে ৪৬ জনকে আটক করা হয়। তাদের মধ্যে ১২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

একজনকে করা হয়েছে জরিমানা। বাকি ৩৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হচ্ছে। এছাড়া দেশের অন্যত্র থেকে সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের খবর পাওয়া গেছে। সারা দেশে প্রায় ৬ লাখ প্রার্থী অংশ নিয়েছেন।

পটুয়াখালী প্রতিনিধি জানান, জেলায় প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস ও অসদুপায় অবলম্বনের অভিযোগে ৪৫ জনকে প্রশ্ন ও বিভিন্ন ডিভাইসসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে পটুয়াখালী শহরের বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে পরীক্ষা শুরু হওয়ার পূর্বে এবং পরে এদের গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের দু’জন উমেদারসহ ১২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বাকি ৩৩ জনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে পুলিশ।

এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি সাংবাদিকদের কাছে উপস্থাপন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মঈনুল হাসান। তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে প্রশ্নপত্র এবং মোবাইল ফোনের বিভিন্ন ডিভাইস ব্যবহার করে সরবরাহ করা উত্তরপত্র উদ্ধার করা হয়। পুলিশ সুপার জানান, পাবলিক পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ আইনে গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

প্রশ্ন ফাঁস চক্রের সঙ্গে কারা জড়িত পুলিশি তদন্তে বেরিয়ে আসবে বলেও জানান তিনি। এদিকে ৩৩ জনকে গ্রেফতার করা হলেও তদন্তের স্বার্থে তাদের নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। এর আগে জেলাপ্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুল হাফিজ ১২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

পবিপ্রবি প্রতিনিধি জানান, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন সৃজনী বিদ্যানিকেতন স্কুল ও কলেজ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত ২য় ধাপের প্রাথমিক বিদ্যালর সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৮০টি প্রশ্নের উত্তর হাতে লেখা চিরকুটসহ দশমিনা উপজেলার রণগোপালদী ইউনিয়নের রুবিনা বেগমকে হাতেনাতে আটক করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় তার পরীক্ষা বাতিলসহ ১ হাজার টাকা জরিমানার শাস্তি প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে এ টাকা নগদ আদায় করে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

শুক্রবার মুন্সীগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, ফরিদপুর, নরসিংদী, জামালপুর, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, শেরপুর, রাজবাড়ী, লক্ষ্মীপুর, কক্সবাজার, চাঁদপুর, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, সিলেট, পিরোজপুর, পটুয়াখালী, সাতক্ষীরা, নীলফামারী, নাটোর, লালমনিরহাট ও ঠাকুরগাঁও জেলায় পরীক্ষা নেয়া হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×