দশ মিনিটের বৃষ্টিতেই তলিয়ে যায় নারায়ণগঞ্জ শহর

  রাজু আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মাত্র ১০ মিনিটের বৃষ্টিতেই তলিয়ে যায় শিল্প ও বন্দরনগরীখ্যাত নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রধান প্রধান সড়ক। আর বৃষ্টির পানির সঙ্গে ড্রেনের ময়লা যুক্ত হয়ে পুরো শহরবাসীকে অবর্ণনীয় দুর্ভোগে ঠেলে দেয়। সাবেক পৌরসভা থকে সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত হওয়ার পরও জলাবদ্ধতা সংকট কাটেনি। রোববার সকালের হালকা বৃষ্টিতেই শহরের চাষাঢ়া, আমলাপাড়া, বালুর মাঠ, দেওভোগসহ কয়েকটি এলাকার প্রধান সড়ক তলিয়ে যায়।

নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রধান সড়ক বঙ্গবন্ধু রোডটি ঘিরেই গড়ে উঠেছে মূল শহর। যার দু’পাশে গড়ে উঠেছে শত শত আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবন। কিন্তু গত দেড় যুগেরও বেশি এই সড়কে অল্প বৃষ্টিতেই কোথাও কোথাও হাঁটুপানি জমে থাকে। রোববার সকালে মাত্র ১০ মিনিটের বৃষ্টিতে ডুবে যায় বঙ্গবন্ধু সড়কসহ নগরীর বেশকিছু এলাকার রাস্তা।

চাষাঢ়া এলাকার মোবাইল ফোন ব্যবসায়ী হাফেজ আহমেদ জানান, হালকা বৃষ্টিতে সড়কে পানি জমে গেছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ড্রেনের দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা পানি। এ দৃশ্য আমাদের কাছে নতুন নয়। আমরা কর দিই ঠিকই, কিন্তু জলাবদ্ধতার অভিশাপ থেকে মুক্তি মেলে না। দেওভোগ এলাকার বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন জানান, বছরের পর বছর শুধু দেখছি ড্রেন করা হচ্ছে, আর একের পর এক খাল ভরাট করে ফেলা হয়েছে। শহরের মূল সড়কের যদি এই অবস্থা হয় তবে সিটি কর্পোরেশনের বন্দর ও সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকার কি অবস্থা তা সহজেই অনুমেয়।

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল যুগান্তরকে জানান, যে শহরের পাশ দিয়ে শীতলক্ষ্যা নদী বয়ে গেছে, সেই শহরের মূল সড়কে এমন জলাবদ্ধতা আমাদের লজ্জা দেয়। সিটি কর্পোরেশন শহরে বহুতল বাণিজ্যিক-আবাসিক ভবন করে, ফুলের গাছ লাগিয়ে দৃশ্যমান উন্নয়ন করলেও মূল নাগরিক সমস্যার সমাধান তিমিরেই রয়ে গেছে। এজন্য দায়ী ড্রেনেজ ব্যবস্থা নিয়ে তাদের অদূরদর্শিতা।

নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান জানান, সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্নকর্মীরা ড্রেনগুলো ঠিকমতো পরিষ্কার করে না। নাসিকের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান আলমগীর হিরন দায়িত্ববান নন বলে অভিযোগ করে রহমান বলেন, এমন জলাবদ্ধতার দায়ভার যেমন সিটি কর্পোরেশনের, তেমনি নাগরিকদেরও দায়িত্বশীলতার অভাব রয়েছে। নাগরিক কমিটির নেতা রফিউর রাব্বি গণমাধ্যমকে জানান, জলাবদ্ধতার ক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্ব রয়েছে। ঠিকঠাকমতো সেটি পালন করলে এমন জলাবদ্ধতা হতো না।

এ ব্যাপারে স্থানীয় কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খোরশেদ জানান, বঙ্গবন্ধু সড়কের হকারদের ফেলে রাখা প্লাস্টিক পলিথিন এই জলাবদ্ধতার মূল কারণ। তবে সাধারণ নাগরিকরা বলছেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় চরম ব্যর্থ সিটি কর্পোরেশন। দেশের একমাত্র ডাস্টবিনহীন শহরে এমন জলাবদ্ধতা থাকাটাই স্বাভাবিক, যেখানে মানুষ বর্জ্য ফেলার জায়গাটুকু পান না।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×