জিয়াউর রহমানের শাহাদতবার্ষিকী

ঈদের পর জাতীয় নির্বাচন দিন : আমীর খসরু

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঈদের আগে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও ঈদের পর জাতীয় নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে তিনি এ দাবি জানান।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম এ সভার আয়োজন করে। সংগঠনের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ আজম খান, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতউল্লাহ, শাহ মো. নেসারুল হক, কৃষক দলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মোজাম্মেল হক মিন্টু, খলিলুর রহমান ইব্রাহিম, মৎস্যজীবী দলের নেতা ইসমাইল হোসেন সিরাজী প্রমুখ।

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখেছে বর্তমান অবৈধ সরকার। তাকে ঈদের আগে মুক্তি দিতে হবে। একাদশ জাতীয় নির্বাচন চুরি করা নির্বাচন। এই নির্বাচন বাতিল করে ঈদের পর পুনরায় জাতীয় নির্বাচন দিন। দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত করুন। দেশের জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দিন। এ সরকার গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার জন্য ৪ বার চুরি করেছে। একবার চুরি করেছে জনগণের দল বিএনপির নেতাকর্মী ও পোলিং এজেন্টদের জেলে ভরে, দ্বিতীয়বার চুরি করেছে আগের দিন রাতে ভোট চুরি করে, আর তৃতীয় চুরি করেছে নির্বাচনের দিন, চতুর্থবার চুরি করেছে ভোটের ফল।

বাংলাদেশের রাজনীতিবিদরা ইতিহাসবিদ হয়ে গেছেন মন্তব্য করে বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, অনেকেই ক্ষমতায় থেকে ইতিহাস রচনা করতে চাচ্ছে। কিন্তু ক্ষমতায় থেকে ইতিহাস রচনা করা যায় না। প্রপাগান্ডা করে ইতিহাস রচনা করা যায় না। রাজনীতিবিদরা যখন ইতিহাসবিদ হয় তখন সেই ইতিহাস আর ইতিহাস থাকে না। বর্তমানে কিছু রাজনীতিবিদ শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ইতিহাস বিকৃত করতে চাচ্ছে, এটাকে আমি প্রপাগান্ডা বলব। এটা কোনোদিনও সফল হবে না। আমীর খসরু বলেন, দেশের স্বাধীনতা ঘোষণা দেয়া, পরিবার-পরিজন রেখে যুদ্ধ করা, জনগণ, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে একত্রিত করে যুদ্ধ করা এবং ‘৭৫-পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশকে অন্ধকার থেকে আলোতে আনার ইতিহাস জিয়াউর রহমানের। এ ইতিহাস কখনও মুছে যাওয়ার নয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×