শেষ কর্মদিবসে ঢিলেঢালা সচিবালয়

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৪ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঈদুল ফিতরের আগে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সোমবার ছিল শেষ কর্মদিবস। প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয়ের চিত্র ছিল ঢিলেঢালা। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতি ছিল তুলনামূলক অনেক কম। যারাও এসেছিলেন তাদের মধ্যে ছিল বাড়ি ফেরার তাড়া। ঈদে বাড়ি যাওয়ার আগে সহকর্মীদের সঙ্গে কোলাকুলি করে বিদায়ও নিয়েছেন কেউ কেউ।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ৫ বা ৬ জুন দেশে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়সহ কয়েকটি মন্ত্রণালয় ঘুরে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতি কিছুটা কম দেখা গেছে। অফিসে উপস্থিত অনেকেই পরস্পরের সঙ্গে গল্প-গুজবে মেতে ছিলেন।

অনেকে সহকর্মীর সঙ্গে ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা বিনিময় সেরে নেন।

শবে কদরের ছুটির পর ঈদের বন্ধের মধ্যে একদিন অফিস থাকায় কেউ কেউ আগেই ছুটি নিয়ে গ্রামের বাড়ি চলে গেছেন। কেউ কেউ সোমবার হাজিরা দিয়েই বাড়ি ফিরতে ছুটছেন রেল, বাসস্টেশন কিংবা লঞ্চঘাটের দিকে। সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জানিয়েছেন, দুই ছুটির মাঝে যারা ছুটি নেন, তাদের এই ছুটি আগের বা পরের সরকারি ছুটির সঙ্গে যুক্ত হয়ে তার ছুটি হিসেবে গণ্য হবে। এ জন্য শবে কদর ও ঈদের ছুটির মাঝখানের কর্মদিবসে ছুটি নেয়ার হার খুব কম। তবে একজন অতিরিক্ত সচিব বলেন, ঈদের আগে শেষ কর্মদিবসে একটু ছাড় দিতে হয়। দু-একজন আজ হাজিরা দিয়ে চলে গেছেন। সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকের নির্ধারিত দিন হওয়ায় এমনিতেই সচিবালয়ে দর্শনার্থীরা প্রবেশ করতে পারেন না। দর্শনার্থী না থাকায় অন্য দিনের মতো ভবনের লিফটের সামনে মানুষের ভিড় ছিল না। সচিবালয়ে যাতায়াতকারী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ও উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের কাছ থেকে ঈদের বকশিশ আদায়ে ব্যস্ত ছিলেন লিফট অপারেটররা।

সচিবালয়ে বেলা ১১টার দিকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে বিশ্বকাপ ক্রিকেট উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। দুপুর পৌনে ১২টার দিকে সমসাময়িক ইস্যুতে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। অফিস করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদারসহ বেশ কয়েকজন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী। মঙ্গলবার শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে ৫ জুন বুধবার ঈদুল ফিতর পালিত হবে। এ ক্ষেত্রে মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার (৪, ৫ ও ৬ জুন) সরকারি ছুটি থাকবে। তবে রমজান মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হলে ঈদ হবে ৬ জুন বৃহস্পতিবার। সেক্ষেত্রে একদিন বেড়ে ৭ জুন শুক্রবারও সরকারি ছুটি থাকবে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×