ঈদ আনন্দের সুযোগে ক্যাম্পের বাইরে রোহিঙ্গারা

  উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ১০ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রোহিঙ্গা

ঈদের দিন বিকাল থেকে রোববার পর্যন্ত অসংখ্য রোহিঙ্গা ঈদ আনন্দের কথা বলে ক্যাম্পের বাইরে চলে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণীর রোহিঙ্গা পাচারকারী চক্র গাড়িতে করে রোহিঙ্গাদের দেশের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে গেছে। সড়কের বিভিন্ন স্থানে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার চেকপোস্ট থাকার পরও রোহিঙ্গারা ক্যাম্প ছেড়েছে বলে বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর সরকার রোহিঙ্গা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য সড়কের বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসিয়েছে। এসব চেকপোস্টে দায়িত্বরত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা অবৈধ উপায়ে রোহিঙ্গাদের ছেড়ে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় লোকজন।

বালুখালী এলাকার আহমদ হোসেন নামের এক ব্যক্তি শনিবার এ প্রতিবেদককে জানান, সে যে সিএনজি করে উখিয়া স্টেশনে এসেছে তাতে সে ছাড়া বাকি ৪ জনই রোহিঙ্গা। উখিয়া ডিগ্রি কলেজসংলগ্ন আর্মি চেকপোস্টে এলে রোহিঙ্গারা আইডি কার্ড প্রদর্শন করলে তাদেরকে ছেড়ে দেয়। মূলত এসব আইডি কার্ড সম্পূর্ণ ভুয়া, কম্পিউটার থেকে বানানো। এরপর উখিয়া টেকনিক্যাল স্কুলের সামনে পুলিশ চেকপোস্টে পৌঁছলে তারাও একইভাবে ছেড়ে দেয়।

পালংখালী ইউপি চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী ঈদের দিন (বুধবার) তার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ক্ষোভ করে জানান, ৬ জুন সকাল থেকে রোহিঙ্গারা ঈদ উৎসবে নেচে-গেয়ে গাড়ি করে বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে একটি অস্থির পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। এসব গাড়ির ড্রাইভার থেকে শুরু করে সবাই রোহিঙ্গা। কিন্তু দেখার বা বলার কেউ নেই। তিনি এসময় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এসব তারা দেখেও না দেখার ভান করে থাকেন- তার মানে কি? তিনি আরও বলেন, এক রোহিঙ্গা ড্রাইভারকে জিজ্ঞাসা করলে সে উল্টো হুমকি দিয়ে বলে, রোহিঙ্গা হয়েছি কি হয়েছে? গত পরশু তো থানায় ডিউটি করে এসেছি, পুলিশ তো ধরে না, আপনি কে?

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল খায়ের বলেন, রোহিঙ্গারা যাতে ক্যাম্পের বাইরে আসতে না পারে সে ব্যাপারে বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা দায়িত্ব পালন করছে। এরপরও কিছু রোহিঙ্গা কৌশলে ক্যাম্পের বাইরে চলে আসছে।

এ ব্যাপারে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নিকারুজ্জামান চৌধুরী জানান, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে কঠোরভাবে দায়িত্ব পালন করছে। যেখানে রোহিঙ্গাদের পাওয়া যায়, সেখান থেকে আটক করে ক্যাম্পে ফেরত পাঠানো হচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×