সুস্থ থাকুন

কোষ্ঠকাঠিন্য ও প্রতিকার

  অধ্যাপক ডা. রাকিবুল আনোয়ার ১৮ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কোষ্ঠকাঠিন্য ও প্রতিকার

কোষ্ঠকাঠিন্যে মলত্যাগ করতে সময় লাগে এবং মল শক্ত ও ছোট আকারের হয়। পেটে চাপ বা কোত দিয়ে মলত্যাগ করতে হয় এবং করার পরও অস্বস্তিকর অনুভূতি হয়।

এ সমস্যায় আক্রান্ত মহিলাদের তলপেট ও পিঠে ব্যথা হয় এবং পেটব্যথা, টেপফাঁপা ও বমির উদ্রেক হয়। গর্ভাবস্থায় কোষ্ঠকাঠিন্যের আশঙ্কা বেড়ে যায় ইস্ট্রোজেন ও প্রজেস্টেরন হরমোনের প্রভাবে। এটি গর্ভবতীদের এতই সাধারণ সমস্যা যে কোষ্ঠকাঠিন্যকে গর্ভধারণের একটি লক্ষণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

গর্ভাবস্থায় কোষ্ঠকাঠিন্য কেন হয়- মহিলাদের প্রজেস্টেরন হরমোন পরিপাকতন্ত্রের মাংসপেশীর শৈথিলতার জন্য অনেকাংশে দায়ী। এ সিথিল মাংসপেশী খাদ্য পরিপাকতন্ত্রের ভেতর দিয়ে পরিভ্রমণের সময় বাড়িয়ে দেয় এবং প্রাথমিকভাবে কোষ্ঠকাঠিন্যের সূচনা করে। তবে ইস্ট্রোজেন ও প্রজেস্টেরন হরমোন ভ্রূণের গঠন, বিকাশ ও প্রতিস্থাপনের জন্য অপরিহার্য। জেনে রাখা ভালো, পরিপাকতন্ত্রের শিথিলতা শুধু কোষ্ঠকাঠিন্য নয়, পাইলস, ফিসার, থ্রোম্বস পাইলসেরও সৃষ্টি করে। এসব উপসর্গ গর্ভবতীদের হলে লজ্জা সংকোচ না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া বাঞ্ছনীয়। কারণ গর্ভকালীন কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময়ের বেশ কয়েকটি কার্যকরী চিকিৎসা ব্যবস্থা আছে।

নিচের উপদেশগুলো গর্ভকালীন কিংবা মহিলাদের কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে দূরে রাখতে সাহায্য করে।

-প্রতিদিন অন্তত ৮-১০ গ্লাস বিশুদ্ধ ও নিরাপদ পানি পান করা।

-ফাইবার সমৃদ্ধ স্বাস্থ্যকর খাবার যেমন- বাদামী পাউরুটি, ফল, শাকসবজি, ডাল ও মটরশুটি খাওয়া।

-অল্প অল্প করে সারাদিনে বেশ কয়েকবার খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে; যা পরিপাকতন্ত্রের ওপর চাপ বা ধকল কমিয়ে আনে।

-ফাইবার বা আঁশযুক্ত খাবারের সঙ্গে পানি পানের পরিমাণও বাড়িয়ে দিতে হবে।

-গর্ভাবস্থায় বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়া কোষ্ঠকাঠিন্য বা মল নরম করার ওষুধ খাওয়া ঠিক নয়। গর্ভাবস্থায় ল্যাক্টুলোজ জাতীয় ওষুধ খাওয়া যায়।

অধ্যাপক ডা. রাকিবুল আনোয়ার

বৃহদান্ত্র ও পায়ুপথ সার্জারি বিশেষজ্ঞ

আরএ হাসপাতাল, গুলশান, ঢাকা।

মোবাইল : ০১৭৮৭৬৯৪৫০৮।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: juganto[email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×