বিদ্যালয় জাতীয়করণ দাবি

আন্দোলনরত শিক্ষকের মৃত্যু, গুরুতর অসুস্থ আরও একজন

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৪ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিদ্যালয় ও চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে আমরণ অনশনরত বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের মধ্যে একজন শনিবার মারা গেছেন। তার নাম জাকির হোসেন। রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে জ্বর ও ডায়াবেটিসজনিত সমস্যা নিয়ে তিনি ভর্তি হয়েছিলেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

বাদপড়া প্রায় ৪ হাজার বিদ্যালয় জাতীয়করণের দাবিতে প্রেস ক্লাবের সামনের ফুটপাতে প্রায় একমাস ধরে আন্দোলন করছেন শিক্ষকরা। আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় প্রথমে অবস্থান কর্মসূচি ও পরে প্রতীকী অনশন করেন তারা। গত ৩ জুলাই থেকে আমরণ অনশন করছেন তারা। আন্দোলনে এখন পর্যন্ত শতাধিক শিক্ষক বিভিন্ন সময়ে অসুস্থ হন।

আন্দোলনের ডাক দেয়া সংগঠন বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান জানান, জাকির হোসেন ফরিদপুরের মধুখালীর হাটঘাটা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকার ইবনেসিনা হাসপাতালে মারা যান তিনি। এই শিক্ষক নেতা আরও বলেন, আন্দোলনের শুরু থেকে জাকির হোসেন প্রেস ক্লাবের সামনে দিনে-রাতে অবস্থান করছিলেন। কয়েকদিন আগে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ফরিদপুরে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু সেখানে তিনি আবার অসুস্থ হয়ে পড়েন। স্থানীয় পর্যায়ে দুটি হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তিনি। সর্বশেষ ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হলে অবস্থার অবনতি ঘটে তার। সেখানকার ডাক্তাররা তাকে রেফার করলে ঢাকায় এনে তাকে ইবনেসিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মিজানুর রহমান জানান, অনশনের কারণে বর্তমানে ১৫ জন শিক্ষক অসুস্থ আছেন। তাদের মধ্যে ঠাকুরগাঁওয়ের জ্যোতিষ চন্দ্র বর্মণের অবস্থা গুরুতর। কলেরায় আক্রান্ত হয়ে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। জ্বরে আক্রান্ত হয়ে শনিবার রাতে সমিতির সভাপতি মামুনুর রশিদ খোকনও হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানান এই নেতা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×