লাকসাম-নোয়াখালী রেললাইনের নিচ দিয়ে ড্রেজিংপাইপ
jugantor
লাকসাম-নোয়াখালী রেললাইনের নিচ দিয়ে ড্রেজিংপাইপ

  এমএ মান্নান ও লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

২১ জুলাই ২০১৯, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

লাকসাম-নোয়াখালী রেলপথের লাকসাম উপজেলা বাটিয়াভিটা এলাকায় আবারও রেলপথের ভেতর দিয়ে ড্রেজিং পাইপ স্থাপন করে বালি নিয়ে রেলওয়ের জায়গায় ভরাট শুরু করেছে কতিপয় ভূমিদস্যু। ফলে আবারও হুমকির মুখে পড়েছে রেলপথটি। যে কোনো মুহূর্তে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, লাকসাম-নোয়াখালী রেলপথের উপজেলা উত্তরদা ইউপির ভাটিয়াবিটা এলাকায় নোয়াখালী সড়কের পশ্চিম পাশে ও নোয়াখালী রেললাইনের পূর্ব পাশে রেল জায়গাটিতে স্থানীয় মিজানসহ কয়েকজন নেতৃত্বে গত ২-৩ দিন ধরে রেল লাইনের স্লিপার নিচ দিয়ে ড্রেজার পাইপ স্থাপন করে ভরাট শুরু করেছে রেলওয়ের জায়গা। এমনভাবে রেলপথের স্লিপারের নিচে ড্রেজারের পাইপ স্থাপন করা হয়েছে, তার ওপর রেলের পাথর দিয়ে পাইপটি চাপা দিয়ে রেখেছে। কেউ যেন দেখতে না পায়। এর আগে গত বছরের শেষ দিকে একই চক্র পর পর দু’বার রেল পথের ভেতর দিয়ে পাইপ স্থাপন করে। এ নিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে লেখালেখির পর রেল কর্তৃপক্ষের টনক নড়ে। তখন তারা অভিযান চালিয়ে এসব পাইপ উচ্ছেদ করে। দেখা যায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় এবার তারা একই স্থানে আবারও রেলপথ স্লিপার নিচ দিয়ে পাইপ স্থাপন করেছে। তবে এবার লোহার পাইপ নয়, প্লাস্টিকের পাইপ স্থাপন করা হয়েছে, যাতে উচ্ছেদ অভিযান করলে লোকসান কম হয়। রেলওয়ে বিভাগের কিছু অসাধু কর্মকর্তার যোগসাজশে কাজ করার সুযোগ করে নিয়েছে। যে কারণে এ রেলপথটি প্রতিনিয়ত দেখাশোনার দায়িত্বপ্রাপ্তরা দেখেও না দেখার ভান করে বিষয়টি এড়িয়ে চলছে।

লাকসাম-নোয়াখালী রেললাইনের নিচ দিয়ে ড্রেজিংপাইপ

 এমএ মান্নান ও লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
২১ জুলাই ২০১৯, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

লাকসাম-নোয়াখালী রেলপথের লাকসাম উপজেলা বাটিয়াভিটা এলাকায় আবারও রেলপথের ভেতর দিয়ে ড্রেজিং পাইপ স্থাপন করে বালি নিয়ে রেলওয়ের জায়গায় ভরাট শুরু করেছে কতিপয় ভূমিদস্যু। ফলে আবারও হুমকির মুখে পড়েছে রেলপথটি। যে কোনো মুহূর্তে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, লাকসাম-নোয়াখালী রেলপথের উপজেলা উত্তরদা ইউপির ভাটিয়াবিটা এলাকায় নোয়াখালী সড়কের পশ্চিম পাশে ও নোয়াখালী রেললাইনের পূর্ব পাশে রেল জায়গাটিতে স্থানীয় মিজানসহ কয়েকজন নেতৃত্বে গত ২-৩ দিন ধরে রেল লাইনের স্লিপার নিচ দিয়ে ড্রেজার পাইপ স্থাপন করে ভরাট শুরু করেছে রেলওয়ের জায়গা। এমনভাবে রেলপথের স্লিপারের নিচে ড্রেজারের পাইপ স্থাপন করা হয়েছে, তার ওপর রেলের পাথর দিয়ে পাইপটি চাপা দিয়ে রেখেছে। কেউ যেন দেখতে না পায়। এর আগে গত বছরের শেষ দিকে একই চক্র পর পর দু’বার রেল পথের ভেতর দিয়ে পাইপ স্থাপন করে। এ নিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে লেখালেখির পর রেল কর্তৃপক্ষের টনক নড়ে। তখন তারা অভিযান চালিয়ে এসব পাইপ উচ্ছেদ করে। দেখা যায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় এবার তারা একই স্থানে আবারও রেলপথ স্লিপার নিচ দিয়ে পাইপ স্থাপন করেছে। তবে এবার লোহার পাইপ নয়, প্লাস্টিকের পাইপ স্থাপন করা হয়েছে, যাতে উচ্ছেদ অভিযান করলে লোকসান কম হয়। রেলওয়ে বিভাগের কিছু অসাধু কর্মকর্তার যোগসাজশে কাজ করার সুযোগ করে নিয়েছে। যে কারণে এ রেলপথটি প্রতিনিয়ত দেখাশোনার দায়িত্বপ্রাপ্তরা দেখেও না দেখার ভান করে বিষয়টি এড়িয়ে চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন