চতুর্থ সন্তানও মেয়ে জীবন্ত মাটিচাপা দেয়ার চেষ্টা

পরে বিক্রি

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে চতুর্থ সন্তানও মেয়ে হওয়ায় নবজাতককে জীবন্ত মাটিচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন পাষণ্ড বাবা। স্ত্রীকে তালাকের হুমকিও দেয়া হয়। অবশেষে হাসপাতালের চিকিৎসক ও আত্মীয়-স্বজনের সহায়তায় নবজাতককে বাঁচানো গেলেও শেষ রক্ষা হয়নি। শেষমেশ ওই নবজাতকের বাবা তাকে মোটা অঙ্কের টাকায় বিক্রি করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে নবজাতকের বাবা সন্তান বিক্রি ও জীবন্ত মাটিচাপা দেয়ার কথা অস্বীকার করে জানান, আমি কোটিপতি, আমি সন্তান বিক্রি করব কেন? ঘটনাটি শনিবার সকালে ঘটে। এলাকায় তা ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

অপরদিকে নবজাতকের মা হাসনা বেগম সন্তান শোকে মুহ্য প্রায়। এরপরও বাবা নবজাতকটির সন্ধান দিচ্ছেন না বা ফিরিয়ে আনছেন না বলে পরিবারের অভিযোগ। এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্র জানায়, ধামরাই উপজেলার পশ্চিম সূত্রাপুর গ্রামের মো. রেজ্জেক আলী বেপারির ছেলে মো. নয়া মিয়া বেপারি একটিমাত্র পুত্র সন্তানের আশায় তিন কন্যা সন্তানের জনক হন। এতে তার মন খুব খারাপ হয়। এরপরও পরিবারের লোকজনের কথায় চতুর্থবার তিনি আরেকটি সন্তান নেন। সেটিও মেয়ে হয়। তখন তিনি মেয়েকে জীবন্ত মাটিচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন।

পরে মেয়েকে অজ্ঞাত ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠে। কোথায় কার কাছে ওই মেয়ে নবজাতককে বিক্রি করা হয়েছে তা এখনও উদঘাটিত হয়নি। পুলিশ ও এলাকাবাসী হন্যে হয়ে ওই শিশুটিকে খুঁজছে। নবজাতকের বাবা নয়া মিয়া জানান, আমার স্ত্রী কিডনি ও জরায়ু ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ায় তার পক্ষে এ সন্তান লালন-পালন করা সম্ভব নয়। তাই আমি আমার স্ত্রীকে বাঁচাতে সন্তানটি অন্যের হাতে তুলে দিয়েছি। এছাড়া আমি এত কন্যা সন্তান দিয়ে কি করব!

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×