দুই আসামির স্বীকারোক্তি

ব্যাটারি চুরি ধামাচাপা দিতে নাইম হত্যা

  সিলেট ব্যুরো ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সিলেট নগরীতে কিশোর নাইম আহমেদ খুনের রহস্য উদঘাটিত হয়েছে। শনিবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে দুই আসামি পারভেজ ও রুকন। পারভেজ আদালতকে জানায়, স্ত্রীর অসুস্থতার খরচ জোগাতে সে নাইমের অটোরিকশার ব্যাটারি চুরি করে বিক্রি করে। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে হত্যার উদ্দেশে নাইমকে বাসায় ডেকে নেয়া হয়। পরে পারভেজ ও রুকন মিলে নাইমকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। তারপর বস্তায় ভরে লাশ ফেলে দেয়া হয়। একই বক্তব্য দেয় অপর আসামি রুকনও। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের বিমানবন্দর থানার ওসি শাহাদত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, চুরির পর বিক্রি করা ব্যাটারি দক্ষিণ সুরমা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর শাহী ঈদগাহ এলাকার লালটিলা থেকে কিশোর নাইম আহমেদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে নাইমের বন্ধু রুকন ও পারভেজ আহমেদ গ্রেফতার হয়। তারা তিনজনই পূর্বপরিচিত ও অটোরিকশাচালক। খুন হওয়া নাইম বিয়ানীবাজার উপজেলার আলবান্না এলাকার আব্বাস উদ্দিনের ছেলে। কাজের সন্ধানে সিলেট নগরীর বালুচর এলাকার সোনাই মিয়ার কলোনিতে পরিবারের সঙ্গে সে থাকত। বৃহস্পতিবার নাইম নিখোঁজ হলে ওই দিনই তার বাবা আব্বাস উদ্দিন বিমানবন্দর থানায় জিডি করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে রুকন ও পারভেজকে গ্রেফতার করে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যার দায় স্বীকার করে ও তাদের দেয়া তথ্যমতেই নাইমের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×