বাংলালিংক ৩ মাসে ৪০ শতাংশ গ্রাহক ফোরজিতে আনবে

  বিশেষ সংবাদদাতা ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশের অন্যতম ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক আগামী তিন মাসের মধ্যে ৬৪ জেলার ৪০ শতাংশ গ্রাহককে ফোরজি নেটওয়ার্কের আওতায় নিয়ে আসবে। এ লক্ষ্যে নেটওয়ার্কের সক্ষমতা বৃদ্ধির কাজ অনেকদূর এগিয়ে নিয়েছে সংস্থাটি। সোমবার সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বাংলালিংকের সিইও এরিক অস এ ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, গ্রাহকদের উন্নততর ডিজিটাল সেবা প্রদানের জন্য চলতি মাসে ৩০০০ কোটি টাকারও বেশি অর্থ বিনিয়োগ করেছে সংস্থাটি। এটি বাংলাদেশের টেলিকম অপারেটরদের মধ্যে সর্বোচ্চ বিনিয়োগ। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বাংলালিংকের চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান, চিফ মার্কেটিং অফিসার মাইক মাইকেল ও প্রতিষ্ঠানটির উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়- এ মাসে বাংলালিংক বেশকিছু মাইলফলক অর্জন করেছে, যা প্রতিষ্ঠানটির নেটওয়ার্ক সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে গ্রাহকদের নিরবচ্ছিন্ন ডিজিটাল সংযোগ ও উন্নততর কাভারেজ প্রদানে ভূমিকা রাখবে। বাংলালিংক সম্প্রতি অনুষ্ঠিত স্পেকট্রাম নিলামে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে ২১০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডের ৫ মেগাহার্টজ স্পেকট্রাম ও ১৮০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডের ৫.৬ মেগাহার্টজ স্পেকট্রাম ক্রয় করে। সংযোজিত এ স্পেকট্রাম বাংলালিংকের মোট স্পেকট্রামের পরিমাণ ৫০ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি করেছে। এর ফলে দেশের প্রধান তিনটি অপারেটরের মধ্যে গ্রাহকপ্রতি স্পেকট্রাম প্রদানের দিক থেকে শীর্ষস্থানে রয়েছে বাংলালিংক। এরিক অস আরও বলেন, এ মাসেই বাংলালিংক ফোরজি সেবা চালুর মাধ্যমে বাংলাদেশে ডিজিটাল সংযোগের এক নতুন যুগের সূচনা করেছে। ফোরজি নেটওয়ার্কের দ্রুতগতির ইন্টারনেট গ্রাহকদের জিরো-বাফার এইচডি ভিডিও স্ট্রিমিং, এইচডি কোয়ালিটির ভিডিও কলিং, হাই ফিডেলিটি মিউজিক স্ট্রিমিং, অনলাইন গেমিং, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ও অন্যান্য ইন্টারনেট সেবা ব্যবহারের সুযোগ করে দেবে। এর পাশাপাশি স্বাস্থ্যসেবা, ভিডিওর মাধ্যমে শিক্ষা গ্রহণ, যোগাযোগ ব্যবস্থা ও সেবার মান বৃদ্ধি করে দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নেও ভূমিকা রাখবে ফোরজি। বাংলালিংক ইতিমধ্যে প্রধান বিভাগীয় শহর ও গুরুত্বপূর্ণ জেলা শহরগুলোতে ফোরজি সেবা চালু করেছে। আগামী রমজানের আগেই দেশের ৩০ শতাংশ এলাকা ফোরজি কাভারেজের আওতায় নিয়ে আসবে বাংলালিংক। নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বিভাগীয় শহরগুলোতে ফোরজি সম্প্রসারণের জন্য ৩৬ মাসের সময়সীমা প্রদান করলেও আগামী তিন মাসের মধ্যেই এ লক্ষ্য অর্জন করবে প্রতিষ্ঠানটি।

টেক নিউট্রালিটির প্রয়োগও বাংলালিংকের সেবার মান বৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে। এ বিশেষ প্রযুক্তিগত সুবিধা যে কোনো ব্যান্ডের স্পেকট্রাম থেকে টুজি, থ্রিজি ও ফোরজি সার্ভিস দেয়ার সুযোগ দেবে। এরিক বলেন, প্রযুক্তির মাধ্যমে মানুষের জীবনযাত্রা পরিবর্তনের লক্ষ্য নিয়ে ২০০৫ সালে যে যাত্রা শুরু করেছিল বাংলালিংক, তা এ মাসে এক নতুন মাত্রা পেয়েছে। স্পেকট্রাম সংযোজন, ফোরজি ও টেক নিউট্রালিটির প্রয়োগ নেটওয়ার্কের সক্ষমতা বৃদ্ধি করে আমাদের সেবার মানকে অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে দেবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter