দুর্গাপূজার কেনাকাটার ধুম যমুনা ফিউচার পার্কে

  যুগান্তর রিপোর্ট ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

যমুনা ফিউচার পার্কে শাড়ি দেখছেন তরুণীরা
যমুনা ফিউচার পার্কে শাড়ি দেখছেন তরুণীরা

দুয়ারে কড়া নাড়ছে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর মহালয়ার মাধ্যমে পূজার ক্ষণগোনা শুরু হবে। দুর্গাপূজা সামনে রেখে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা এখন কেনাকাটায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।

সাধ আর সাধ্যের মধ্যে পোশাক কিনতে রাজধানীর বিভিন্ন মার্কেট, ফ্যাশন হাউসসহ অন্যান্য কাপড়ের দোকানে ভিড় করছেন। তবে ক্রেতারা বিভিন্ন স্থানে না ঘুরে এক ছাদের নিচে সবকিছু পাওয়া যাচ্ছে এমন শপিংমলকে কেনাকাটার জন্য বেছে নিচ্ছেন।

এ ক্ষেত্রে সবার পছন্দ দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহৎ শপিংমল যমুনা ফিউচার পার্ক। কারণ বাঙালি, পশ্চিমা সংস্কৃতির আধুনিক ও সর্বশেষ ডিজাইন সম্বলিত সব পোশাক এখানে পাওয়া যাচ্ছে।

শুক্রবার সরেজমিন যমুনা ফিউচার পার্ক ঘুরে দেখা গেছে, সময় নিয়ে পছন্দের পোশাক কিনতে তরুণ-তরুণী ও কিশোর-কিশোরীরা আগেভাগেই শপিংমলে ঘোরাঘুরি করছেন। তরুণী-কিশোরীরা পোশাক সেলাই করতেও দিয়েছেন।

এখন চলছে থ্রি পিসের জন্য ম্যাচিং করে জুতা ও কসমেটিক্স কেনার পালা। বিবাহিত ও বয়স্ক মহিলাদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে রয়েছে শাড়ি।

কিশোর-কিশোরী, তরুণ-তরুণীদের হাল ফ্যাশনের চাহিদা মেটাতে দেশি কাপড়ের পাশাপাশি শো-রুমগুলোতে রয়েছে পাকিস্তান, ভারত, থাইল্যান্ড ও চীন থেকে আমদানি করা পোশাক। সেখান থেকেই পছন্দের পোশাকটি সাধ্যমতো সংগ্রহ করছেন ক্রেতারা।

সকালের চেয়ে সন্ধ্যা থেকে বিক্রি ও ক্রেতাদের উপস্থিতি বেশি বলে জানিয়েছেন শো-রুমগুলোর বিক্রয়কর্মীরা।

রাজধানীর ওয়ারী থেকে পূজার কেনাকাটা করতে আসা অদিতি দেব নামে একজন ক্রেতা বলেন, মা দুর্গাকে বরণ করতে লাল-সাদার সনাতনী সাজ অবশ্যই থাকা চাই। সে অনুযায়ীই আমি লাল পাড়ে সাদা জামদানি শাড়ি কিনতে এখানে এসেছি।

যমুনা ফিউচার পার্কে আসার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখানে এক ছাদের নিচে সব দেশি-বিদেশি ব্র্যান্ডের পোশাকের শোরুম রয়েছে। পরিবারের সব সদস্যের কেনাকাটার শোরুম আছে। তাছাড়া আয়তনে বড় হওয়ায় হুড়োহুড়ি, ধাক্কাধাক্কি ছাড়াই স্বাচ্ছন্দ্যে কেনাকাটা করা যায়।

দেখা গেছে, তরুণী-কিশোরীরা ভারতীয় লেহেঙ্গা, থ্রি পিস কেনায় বেশি আগ্রহী। এ ক্ষেত্রে তাদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে রয়েছে ফ্যাশন হাউস মেট্রোর পোশাক। এখানকার সারারা, গারারা, লং গাউন, স্টোন থ্রি পিস, চিনন সিল্ক কটনের পোশাক নারীদের নজর কেড়েছে। পুরুষদের জন্য নতুন ডিজাইনের পাঞ্জাবি রয়েছে এখানে।

আর দেশীয় ব্র্যান্ডের মধ্যে আড়ং, অঞ্জন’স, দেশীদশ, নবরূপা, জেন্টাল পার্ক, ইনফিনিটি, ক্যাটসআই নতুন পূজার কালেকশন বাজারে এনেছে। ক্রেতারাও তাদের পছন্দসই পোশাক কিনতে ভিড় করছেন সেখানে। ঘুরে ঘুরে নতুন মডেলের জামা-কাপড় কিনছেন সবাই।

উত্তরা থেকে পূজার কেনাকাটা করতে আসা তরুণী পুষ্পিতা রায় বলেন, ইতিমধ্যেই পূজা উপলক্ষে তিনটি থ্রি পিস কিনেছি। দশমীর দিন পরার জন্য লাল-সাদা গরদ শাড়ি কিনতে এসেছি। কারণ এখানকার কালেকশন ভালো। এছাড়া মায়ের জন্যও একটি শাড়ি কিনব। পাশাপাশি বাবার জন্য পাঞ্জাবি কিনেছি।

অঞ্জনসের এক বিক্রয়কর্মী বলেন, এখনও পুরোপুরি পূজার কেনাকাটা জমেনি। শেষদিকে পূজার কেনাকাটা জমবে। তবে সাপ্তাহিক ছুটির দিনগুলোতে বিক্রি ভালো হচ্ছে। সকালে ভিড় একটু কম হলেও বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত ক্রেতা বাড়ছে। হাতে আরও বেশ কিছু দিন সময় আছে। আশা করছি বিক্রি আরও জমে উঠবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×