টাকার পেছনে ছোটার সংস্কৃতি

আইনজীবীদের ওপর আস্থা হারিয়েছে মানুষ : রাষ্ট্রপতি

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ১১ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, অতীতে রাজনৈতিক ও সামাজিক ক্ষেত্রে আইনজীবীদের যে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা ও ঐতিহ্য ছিল তা আজ ম্লান। টাকার পেছনে ছোটার কালচারের (সংস্কৃতি) কারণে আইনজীবীদের ওপর মানুষ আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, আগে যারা সংসদে এমপি হতেন তাদের একটা বড় অংশ ছিলেন আইনজীবী। তারা সমাজ ও রাষ্ট্রে নেতৃত্ব দিতেন। কিন্তু বর্তমানে নানা অবক্ষয়ের কারণে সেটা আর দেখা যায় না। তিনি পরিসংখ্যান দিয়ে বলেন, ১৯৭০ সালের পার্লামেন্টে আইনজীবীর সংখ্যা ছিল ৫১ ভাগ। অষ্টম সংসদে ছিলেন মাত্র ৩৩ জন। এখন হয়তো তা আরও কম।

রাষ্ট্রপতি আইনজীবীদের সমালোচনা করে বলেন, আইনিসেবা নিতে গিয়ে সাধারণ মানুষকে হয়রানির শিকার হতে হয়। শুধু টাকার পেছনে ছোটার সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। তবেই মানুষ আইনজীবীদের আগের মতো শ্রদ্ধা করবে, আস্থায় নেবে।

জেলা আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট মিয়া মোহাম্মদ ফেরদৌসের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন, কিশোরগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নূর মোহাম্মদ, জেলা ও দায়রা জজ ছায়েদুর রহমান খান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জিল্লুুর রহমান, আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম সহিদ। এ সময় কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য আফজাল হোসেন, জেলা প্রশাসক সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী ও পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রাষ্ট্রপতি আইনজীবী সমিতির ১০ তলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের শুরুতেই সমিতির পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান, মানপত্র পাঠ ও সম্মাননা ক্রেস্ট দেয়া হয়। শুক্রবার রাষ্ট্রপতি তার নিজ উপজেলা মিঠামইন যাবেন। সেখানে তার বেশকিছু অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার কথা রয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×