চাঁদপুরে মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন : আহত ৩০
jugantor
চাঁদপুরে মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন : আহত ৩০

  চাঁদপুর ও ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি  

১০ মার্চ ২০১৮, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চাঁদপুরে আন্তঃনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। উপস্থিত লোকজনের সহায়তায় দ্রুত আগুন নেভানোয় অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন কয়েকশ’ যাত্রী। তবে আতঙ্কে ট্রেন থেকে হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে অন্তত ৩০ যাত্রী কমবেশি আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

চাঁদপুর রেলওয়ের বিদ্যুৎ বিভাগ, ক্যারেজ বিভাগ, ট্রেনের দায়িত্বে থাকা ইলেকট্রিক ফিটার, রেলওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চাঁদপুর-চট্টগ্রামের মধ্যে চলাচলকারী আন্তঃনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি বৃহস্পতিবার রাতে চাঁদপুর স্টেশনে পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে হঠাৎ ট্রেনের পাওয়ার কারে আগুন ধরে যায়। ট্রেনের ১৭টি বগির মধ্যে মাঝামাঝি স্থানে থাকা ৮৩৫৮নং বগিটির পাওয়ার কারে ওভার হিটের কারণে ২টি জেনারেটরে আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যে ট্রেনের বগির ভেতর আগুনের লেলিহান শিখা ছড়াতে থাকে। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে স্টেশন এলাকায়। ট্রেনের সব লাইট বন্ধ হয়ে যায়। অন্ধকারে যাত্রীরা চিৎকার করতে থাকেন। ট্রেনের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য, ক্যারেজ স্টাফ, রেলওয়ে থানা পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন ১১টি অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রের সাহায্যে গ্যাস ছিটিয়ে এবং পানি দিয়ে অল্প সময়ের মধ্যে আগুন নেভাতে সক্ষম হন। ফলে আগুন ট্রেনের অন্য বগিতে ছড়াতে পারেনি। এতে পাওয়ার কারসহ ১৭টি বগি রক্ষা পায়। তবে দ্রুত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে অন্তত ৩০ যাত্রী আহত হয়েছেন।

পাওয়ার কারে থাকা দ্বিতীয় ড্রাইভার আ. করিম বলেন, আগুন লাগার সময় আমি পাওয়ার কারে ছিলাম। ইঞ্জিন ওভারহিটের কারণে পাওয়ার কারের অ্যাডভেস্টোটের কাপড়ে আগুন লেগে জেনারেটরে ছড়িয়ে পড়ে।

চাঁদপুরে মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন : আহত ৩০

 চাঁদপুর ও ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি 
১০ মার্চ ২০১৮, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চাঁদপুরে আন্তঃনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। উপস্থিত লোকজনের সহায়তায় দ্রুত আগুন নেভানোয় অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন কয়েকশ’ যাত্রী। তবে আতঙ্কে ট্রেন থেকে হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে অন্তত ৩০ যাত্রী কমবেশি আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

চাঁদপুর রেলওয়ের বিদ্যুৎ বিভাগ, ক্যারেজ বিভাগ, ট্রেনের দায়িত্বে থাকা ইলেকট্রিক ফিটার, রেলওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চাঁদপুর-চট্টগ্রামের মধ্যে চলাচলকারী আন্তঃনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি বৃহস্পতিবার রাতে চাঁদপুর স্টেশনে পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে হঠাৎ ট্রেনের পাওয়ার কারে আগুন ধরে যায়। ট্রেনের ১৭টি বগির মধ্যে মাঝামাঝি স্থানে থাকা ৮৩৫৮নং বগিটির পাওয়ার কারে ওভার হিটের কারণে ২টি জেনারেটরে আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যে ট্রেনের বগির ভেতর আগুনের লেলিহান শিখা ছড়াতে থাকে। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে স্টেশন এলাকায়। ট্রেনের সব লাইট বন্ধ হয়ে যায়। অন্ধকারে যাত্রীরা চিৎকার করতে থাকেন। ট্রেনের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য, ক্যারেজ স্টাফ, রেলওয়ে থানা পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন ১১টি অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রের সাহায্যে গ্যাস ছিটিয়ে এবং পানি দিয়ে অল্প সময়ের মধ্যে আগুন নেভাতে সক্ষম হন। ফলে আগুন ট্রেনের অন্য বগিতে ছড়াতে পারেনি। এতে পাওয়ার কারসহ ১৭টি বগি রক্ষা পায়। তবে দ্রুত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে অন্তত ৩০ যাত্রী আহত হয়েছেন।

পাওয়ার কারে থাকা দ্বিতীয় ড্রাইভার আ. করিম বলেন, আগুন লাগার সময় আমি পাওয়ার কারে ছিলাম। ইঞ্জিন ওভারহিটের কারণে পাওয়ার কারের অ্যাডভেস্টোটের কাপড়ে আগুন লেগে জেনারেটরে ছড়িয়ে পড়ে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন