খুলনা বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিস

জাতীয় পরিচয়পত্র ছাড়া নেয়া হচ্ছে না আবেদন

ভোগান্তিতে রোগী, বিদেশে যেতে আগ্রহী, শিক্ষার্থীরাসহ বিভিন্ন শ্রেণির গ্রাহক

  নূর ইসলাম রকি, খুলনা ব্যুরো ১৪ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ফাইল ছবি

আঠারো বছরের ঊর্ধ্বে আবেদনকারীদের কাছ থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) ছাড়া পাসপোর্টের কোনো আবেদন গ্রহণ করা হচ্ছে না।

খুলনা বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসে সম্প্রতি জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা গ্রাহকরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। পাসপোর্ট প্রত্যাশীদের দাবি, অনেক প্রাপ্তবয়স্ক (১৮ বছরের ঊর্ধ্বে) বিভিন্ন কারণে জাতীয় পরিচয়পত্র গ্রহণ করতে পারেননি।

কিন্তু জন্মনিবন্ধন আছে। তারপরও তাদের আবেদন নেয়া হচ্ছে না। কী কারণে এটা করা হচ্ছে পরিষ্কার নয়। তবে স্থানীয় পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী পাসপোর্টের আবেদন জমা নেয়ার ক্ষেত্রে কিছুটা পরিবর্তন এসেছে।

নগরীর নূরনগরের খুলনা বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসে গিয়ে দেখা যায়, তেরখাদা ও কয়রা উপজেলাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা পাসপোর্ট প্রত্যাশীরা জাতীয় পরিচয়পত্র ছাড়া আবেদন জমা দিতে পারছেন না।

বাধ্য হয়ে তারা ফিরে যাচ্ছেন। এমনকি খুলনার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও এমন ভোগান্তিতে পড়েছেন।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক কয়েকজন পাসপোর্ট প্রত্যাশী জানান, পাসপোর্টের আবেদন ফরমের সঙ্গে জন্মনিবন্ধনের কপি নিয়ে গেলে তাদের ফেরত দেয়া হয়েছে।

অথচ এর আগে জন্মনিবন্ধন দিয়েই পাসপোর্ট করা যেত। তারা অভিযোগ করেন, ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে শুধু জন্মনিবন্ধনে পাসপোর্ট হবে না বলে অফিস থেকে জানিয়েছে। কিন্তু বিষয়টি টিভি বা পত্রিকায় প্রচার নেই। তবে অনেকেই নতুন নিয়ম সম্পর্কে অবগত নয়।

পাসপোর্ট প্রত্যাশীরা আরও বলেন, বর্তমানে জন্মনিবন্ধন অনলাইন হয়ে গেছে। এছাড়া অনেকেই বিভিন্ন কারণে ভোটার হতে পারে না। তাদের জন্য পাসপোর্ট করা এখন অসাধ্য হয়ে গেছে।

এছাড়া জরুরি ভিত্তিতে ভোটার হওয়ার পরও জাতীয় পরিচয়পত্রের ভেরিফাইড কপি পেতেও দুই থেকে চার সপ্তাহ সময় লাগে। এতে করে মুমূর্ষু রোগী, বিদেশে যেতে আগ্রহী, শিক্ষার্থীরাসহ বিভিন্ন শ্রেণির গ্রাহকদের নতুন করে ভোগান্তি শুরু হয়েছে। বিষয়টি কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিগোচর হওয়া দরকার।

পাসপোর্ট অফিস সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি দেশের আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস/বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসসমূহে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) থাকা সত্ত্বেও তা গোপন করে জন্ম নিবন্ধন দিয়ে পাসপোর্টের আবেদন করা হচ্ছে।

যার প্রেক্ষিতে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের মহাপরিচালকের পক্ষে সহকারী পরিচালক (পাসপোর্ট) মো. সাহজাহান কবির গত ৮ ডিসেম্বর এক অফিস আদেশ জারি করেন।

আদেশে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে আবেদনকারীদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) গ্রহণ সাপেক্ষে আবেদন জমা, ১৫ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের ক্ষেত্রে পিতা, মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) জমা নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

খুলনা জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মাজহারুল ইসলাম বলেন, ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে যারা ভোটার হয়নি তাদের জাতীয় পরিচয়পত্রের আবেদন সব সময়ই নেয়া হয়।

আবেদনের পর যাচাই-বাছাই শেষে অনলাইনে ভেরিফাইড কপি পাওয়া যায়, যা দিয়ে নতুন ভোটাররা জাতীয় পরিচয়পত্রের কাজ করতে পারেন।

বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের পরিচালক তৌফিকুল ইসলাম খান বলেন, সম্প্রতি মহাপরিচালকের নির্দেশেই পাসপোর্টের আবেদন জমা নেয়ার ক্ষেত্রে কিছুটা পরিবর্তন এসেছে। ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে আবেদনকারীদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) গ্রহণ সাপেক্ষে আবেদন জমা করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত