বিদ্যাগঞ্জে আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রাবিরতি দাবিতে মানববন্ধন
jugantor
বিদ্যাগঞ্জে আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রাবিরতি দাবিতে মানববন্ধন

  ময়মনসিংহ ব্যুরো  

১৫ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ময়মনসিংহ-জামালপুর রেলপথের বিদ্যাগঞ্জ রেল স্টেশনে আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রাবিরতি দাবিতে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলার বিদ্যাগঞ্জ রেল স্টেশন-সংলগ্ন বাজারে আন্তঃনগর ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস, যমুনা এক্সপ্রেস, অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস ও দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার ট্রেনসহ প্রস্তাবিত নতুন ট্রেনগুলোর যাত্রাবিরতির দাবিতে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। কর্মসূচিতে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার হাজারও মানুষ অংশ নেন।

ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা আনছার আলী। বক্তব্য দেন সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ, কুষ্টিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসানুল ইসলাম হাসান, কুষ্টিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা এসএম শামসুল হক কালু, বিদ্যাগঞ্জ কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা কিফায়েতুল্লাহ, জাতীয় পার্টির ইউনিয়ন সভাপতি আবদুল লতিফ সরকার, বিএনপি নেতা নূরে আলম হারুন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আনছার আলী মণ্ডল প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ময়মনসিংহ সদর উপজেলার কুষ্টিয়া, অষ্টাধর, বোররচর, খাগডহর ও মুক্তাগাছা উপজেলার তারাটি ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ বিদ্যাগঞ্জ হয়ে সারা দেশে যাতায়াত করেন। বিদ্যাগঞ্জ বাজার-সংলগ্ন এলাকায় রেল স্টেশন, ব্যাংক, বিদ্যুৎ অফিস, স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা, এনজিওসহ বহু সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। বিদ্যাগঞ্জ রেল স্টেশনে আন্তঃনগর ট্রেনগুলো যাত্রাবিরতি করলে দ্রুত যাতায়াতসহ সময় ও অর্থের সাশ্রয় হবে। অবিলম্বে আন্তঃনগর ট্রেন যাত্রাবিরতি না করলে রেলপথ অবরোধসহ কঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুমকি দেন বক্তারা।

বিদ্যাগঞ্জে আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রাবিরতি দাবিতে মানববন্ধন

 ময়মনসিংহ ব্যুরো 
১৫ জানুয়ারি ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ময়মনসিংহ-জামালপুর রেলপথের বিদ্যাগঞ্জ রেল স্টেশনে আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রাবিরতি দাবিতে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলার বিদ্যাগঞ্জ রেল স্টেশন-সংলগ্ন বাজারে আন্তঃনগর ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস, যমুনা এক্সপ্রেস, অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস ও দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার ট্রেনসহ প্রস্তাবিত নতুন ট্রেনগুলোর যাত্রাবিরতির দাবিতে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। কর্মসূচিতে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার হাজারও মানুষ অংশ নেন।

ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা আনছার আলী। বক্তব্য দেন সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ, কুষ্টিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসানুল ইসলাম হাসান, কুষ্টিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা এসএম শামসুল হক কালু, বিদ্যাগঞ্জ কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা কিফায়েতুল্লাহ, জাতীয় পার্টির ইউনিয়ন সভাপতি আবদুল লতিফ সরকার, বিএনপি নেতা নূরে আলম হারুন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আনছার আলী মণ্ডল প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ময়মনসিংহ সদর উপজেলার কুষ্টিয়া, অষ্টাধর, বোররচর, খাগডহর ও মুক্তাগাছা উপজেলার তারাটি ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ বিদ্যাগঞ্জ হয়ে সারা দেশে যাতায়াত করেন। বিদ্যাগঞ্জ বাজার-সংলগ্ন এলাকায় রেল স্টেশন, ব্যাংক, বিদ্যুৎ অফিস, স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা, এনজিওসহ বহু সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। বিদ্যাগঞ্জ রেল স্টেশনে আন্তঃনগর ট্রেনগুলো যাত্রাবিরতি করলে দ্রুত যাতায়াতসহ সময় ও অর্থের সাশ্রয় হবে। অবিলম্বে আন্তঃনগর ট্রেন যাত্রাবিরতি না করলে রেলপথ অবরোধসহ কঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুমকি দেন বক্তারা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন