দশমিনায় সরকারি চাল আত্মসাৎ

ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা এমপির

  পটুয়াখালী ও দশমিনা প্রতিনিধি ১৫ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় এক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতার চাল চুরির ঘটনা ধামাচাপা দেয়া ও তার পক্ষে অবস্থান নিয়ে বির্তকে জড়িয়ে পড়েছেন পটুয়াখালী-৩ (গলাচিপা-দশমিনা) আসনের সংসদ সদস্য এসএম শাহাজাদা সাজু। ইতোমধ্য ওই এমপির কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে উপজেলা পরিষদে বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘট পালন করেছেন ভুক্তভোগীরা। পরে দশমিনা থানার ওসির প্রতিশ্রুতিতে অভিযোগকারীরা তাদের অবস্থান কর্মসূচি তুলে নিয়েছেন। স্থানীয় রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের জেরে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জানা যায়, ৩০ এপ্রিল দশমিনা উপজেলার সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ডিলার আবদুল হাই সিকদারের বিরুদ্ধে ১০ টাকা কেজির চাল আত্মসাতের অভিযোগ করেন কাঁটাখালী-গোলখালী এলাকার ১৯ জন উপকারভোগী। উপজেলা প্রশাসন তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পায়। ডিলার আবদুল হাইয়ের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। স্থানীয় এমপি এসএম শাহজাদা ওই ডিলারের পক্ষে অবস্থান নিয়ে বুধবার তার সমর্থিত লোকজন নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে যান। এ সময় এমপি ডিলার আবদুল হাইয়ের লাইসেন্স পুনর্বহাল করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানিয়া ফেরদৌসকে চাপ দেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রস্তাবে আপত্তি জানালে এমপি ক্ষিপ্ত হয়ে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন।

এদিকে আবদুল হাই সিকদারের বিরুদ্ধে অভিযোগকারীর মধ্যে সুখরঞ্জন (৮০), কালিচরণ (৭৫), আনন্দ (৪২), ফিরোজ (৩৫) ও সুক্কুর রাঢ়ীকে (৬৫) বুধবার এমপি শাহজাদা নিজস্ব বাসভবনে তুলে নিয়ে যান। এ সময় আত্মসাৎ করা চাল ফেরত দেয়া ও চার লাখ টাকা মূল্যে ঘর বরাদ্দ দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয় এমপির পক্ষ থেকে। তবে এমপি শর্ত দেন অভিযোগ তুলে নিতে হবে। এরপর ৫ জনের মধ্যে তিনজন এমপির হুমকির মুখে সাদা কাগজে স্বাক্ষর করতে বাধ্য হয়েছেন। এরপর ভুক্তভোগীরা বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় নিরাপত্তার দাবি ও চাল চুরির ঘটনায় অভিযুক্তদের বিচারের দাবিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের ঘণ্টাব্যাপী অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত