রংপুরে থামছে না ভেজাল পণ্য উৎপাদন ও বিপণন
jugantor
রংপুরে থামছে না ভেজাল পণ্য উৎপাদন ও বিপণন

  রংপুর ব্যুরো  

১৬ মে ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনা দুর্যোগেও রংপুরে থামছে না ভেজাল পণ্যের উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ। ঈদ সামনে রেখে একশ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী দেদার চালিয়ে যাচ্ছে ভেজাল খাদ্য ও প্রসাধনী পণ্যের ব্যবসা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মহানগর ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে ভেজাল লাচ্ছা সেমাইসহ বিপুল পরিমাণ পণ্য জব্দ ও এক ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। নগরীর তাজহাট এলাকায় দিপু ফুড প্রডাক্ট নামে এক প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ভেজাল লাচ্ছা সেমাই, চানাচুর, বুটসহ জব্দ করা হয়। প্রতিষ্ঠানের মালিক কামরুল হাসান চৌধুরীর স্ত্রী মাসুদা আক্তার পলিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এর আগে ১১ এপ্রিল নগরীর খাসবাগ এলাকার ময়েন উদ্দিনের ছেলে মিথুন সরকারের বাসা ও গোডাউনে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল পাউডার, ভ্যাসলিন, ফেসওয়াশ, আতর জব্দ করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ওই ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এছাড়াও বৃহস্পতিবার নগরীর মাহিগঞ্জ কলাবাড়িতে নকল টেস্টি স্যালাইন কারখানায় অভিযান চালিয়ে ৯১ হাজার নকল স্যালাইন উদ্ধার ও মালিক ইসহাক হোসেনকে আটক ও ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একই দিন নগরীর ৩৩ নং ওয়ার্ডে জোড়ইন্দা গ্রামের একটি সেমাই কারখানায় অভিযান চালিয়ে মালিককে চার হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার উত্তম প্রসাদ পাঠক জানান, রংপুরে নকল ও ভেজাল পণ্য প্রস্তুতকারী ও বাজারজাতকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। কেউই ছাড় পাবে না।

রংপুরে থামছে না ভেজাল পণ্য উৎপাদন ও বিপণন

 রংপুর ব্যুরো 
১৬ মে ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনা দুর্যোগেও রংপুরে থামছে না ভেজাল পণ্যের উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ। ঈদ সামনে রেখে একশ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী দেদার চালিয়ে যাচ্ছে ভেজাল খাদ্য ও প্রসাধনী পণ্যের ব্যবসা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মহানগর ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে ভেজাল লাচ্ছা সেমাইসহ বিপুল পরিমাণ পণ্য জব্দ ও এক ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। নগরীর তাজহাট এলাকায় দিপু ফুড প্রডাক্ট নামে এক প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ভেজাল লাচ্ছা সেমাই, চানাচুর, বুটসহ জব্দ করা হয়। প্রতিষ্ঠানের মালিক কামরুল হাসান চৌধুরীর স্ত্রী মাসুদা আক্তার পলিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এর আগে ১১ এপ্রিল নগরীর খাসবাগ এলাকার ময়েন উদ্দিনের ছেলে মিথুন সরকারের বাসা ও গোডাউনে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল পাউডার, ভ্যাসলিন, ফেসওয়াশ, আতর জব্দ করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ওই ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এছাড়াও বৃহস্পতিবার নগরীর মাহিগঞ্জ কলাবাড়িতে নকল টেস্টি স্যালাইন কারখানায় অভিযান চালিয়ে ৯১ হাজার নকল স্যালাইন উদ্ধার ও মালিক ইসহাক হোসেনকে আটক ও ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একই দিন নগরীর ৩৩ নং ওয়ার্ডে জোড়ইন্দা গ্রামের একটি সেমাই কারখানায় অভিযান চালিয়ে মালিককে চার হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার উত্তম প্রসাদ পাঠক জানান, রংপুরে নকল ও ভেজাল পণ্য প্রস্তুতকারী ও বাজারজাতকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। কেউই ছাড় পাবে না।