দিনাজপুরে নসরুল হামিদ

২ মাসের মধ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদন ১২ হাজার মেগাওয়াট ছাড়াবে

  একরাম তালুকদার, দিনাজপুর ২৪ মার্চ ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, দেশে বর্তমানে ১০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে, যা অতীতের সব রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। ২ মাসের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন ১২ হাজার মেগাওয়াট ছাড়িয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন তিনি। পাশাপাশি দিনাজপুর ও রংপুর এলাকায় গ্যাসের সমস্যা সমাধানে আগামী নির্বাচনের আগেই পাইপলাইন বসানো হবে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। শুক্রবার দুপুরে দিনাজপুরের মধ্যপাড়া পাথরখনিতে খনি উত্তোলনের কাজে নিয়োজিত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান জার্মানিয়া ট্রেস্ট কনসোর্টিয়াম-জিটিসির ব্যবস্থাপনায় ৯নং স্টোপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ডিসেম্বরের মধ্যেই শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আনা হবে। উত্তরাঞ্চলে তার আগেই শতভাগ বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে। তিনি বলেন, দিনাজপুর ও রংপুরে গ্যাসের সমস্যা সমাধানে যাচাই-বাছাইয়ে কাজ চলছে, পেট্রোবাংলা কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ডিসেম্বরের আগেই রংপুরে গ্যাসের পাইপলাইন বসানো হবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে এই খনি থেকে দৈনিক প্রায় ৫ হাজার টন পাথর উত্তোলন হচ্ছে। এটা ৩০ হাজার টনে উন্নীত করতে হবে। তাহলেই পেট্রোবাংলা লাভজনক হবে। দেশে পাথরের ব্যাপক চাহিদার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, দেশে দৈনিক ১ লাখ টন পাথরের চাহিদা রয়েছে, এটা মেটাতে আমদানি করতে হচ্ছে।

মধ্যপাড়া কঠিন শিলাখনির কয়লা উত্তোলনে নিয়োজিত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান জিটিসির চেয়ারম্যান ড. সিরাজুল ইসলাম কাজীর সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মো. ফয়েজউল্লাহ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. রুহুল আমীন, মধ্যপাড়া পাথরখনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এসএম নুরুল আওরঙ্গজেব প্রমুখ। পরে আনুষ্ঠানিকভাবে মধ্যপাড়া পাথরখনির ৯নং স্টোপের উদ্বোধন করেন প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। এই স্টোপ থেকে মাসে ১ লাখ ২০ হাজার টন পাথর উত্তোলন হবে বলে জানায় খনি কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×