সারিয়াকান্দিতে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ

  বগুড়া ব্যুরো ০২ জুন ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে সপ্তম শ্রেণির স্কুলছাত্রী প্রতিবেশী চার তরুণের সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে। উপজেলার কামালপুর ইউনিয়নের দড়িপাড়া গ্রামে শনিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। ছাত্রীর বাবা ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের কাছে বিচার চেয়ে আবেদন করলে অভিযুক্তরা হাজির না হওয়ায় বিচার করা সম্ভব হয়নি। পরিবারের পক্ষ থেকে সোমবার বিকালে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল। ওসি আল আমিন জানান, এমন অভিযোগ শুনেছেন। মামলা দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অভিযোগে জানা গেছে, দড়িপাড়া গ্রামের স্থানীয় আওলাকান্দি ইএম উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র প্রতিবেশী শাহীন প্রামাণিকের ছেলে সাদি মো. আবদুল্লাহ ওই ছাত্রীকে প্রেম নিবেদন করে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। বাধ্য হয়ে ওই ছাত্রী স্কুলে অনিয়মিত হয়ে যায়। শনিবার সন্ধ্যার পর ওই স্কুলছাত্রী বাড়ির পেছনে বাথরুমে যাচ্ছিল। এ সময় পাশে লুকিয়ে থাকা বখাটে সাদির নেতৃত্বে তার সঙ্গী একই গ্রামের নয়া মিয়ার ছেলে ধুনটের আনারপুর ভোকেশনাল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সোহানুর রহমান সোহান, মোখলেসুর রহমানের ছেলে গোসাইবাড়ি ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র তরিকুল ইসলাম রিমন ও মঞ্জু প্রামাণিকের ছেলে একটি কোম্পানির কর্মচারী সৌরভ মাহমুদ মিশু কাপড় দিয়ে মুখ বেঁধে তাকে পাশের একটি বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে তারা তাকে ধর্র্ষণ করে। পরদিন বাবা-মা ধর্ষকদের বিচার চেয়ে কামালপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হেদায়েদুল ইসলাম হেদায়েতের কাছে অভিযোগ করেন। কিন্তু বিচার না পেয়ে সোমবার তারা থানায় মামলার প্রস্তুতি নেন।

কামালপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হেদায়েদুল ইসলাম জানান, তিনি ছাত্রীর বাবা-মায়ের অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযুক্ত বখাটে সাদি ও তার বন্ধুদের সবাইকে ডেকেছিলেন। তারা সাড়া না দেয়ায় বিচার করা সম্ভব হয়নি। তাই স্কুলছাত্রীর পরিবারকে আইনের আশ্রয় নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

সারিয়াকান্দি থানার ওসি আল আমিন জানান, শুনেছি একজনের সঙ্গে ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক আছে। অভিযোগ করা হচ্ছে- অন্যদের সহযোগিতায় ওই প্রেমিক ধর্ষণ করেছে। এমন অভিযোগ পাওয়ার পর সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সোমবার বিকাল পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত