যশোরের আসমার ঘাতক গ্রেফতার

স্বামীর কাছে ফিরে যেতে চাওয়ায় ভারতে নিয়ে খুন

  যশোর ব্যুরো ০২ জুন ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

স্বামীর কাছে ফিরে যেতে চাওয়ায় পরকীয়া প্রেমিক আবুল কাসেম (৫১) পাসপোর্টে ভারতে নিয়ে খুন করে যশোরের গৃহবধূ আসমাকে। হত্যার প্রায় পাঁচ মাস পর যশোর ডিবি পুলিশের সদস্যরা রাজধানীর পল্লবী থেকে ছদ্মবেশ ধারণ করা আবুল কাসেমকে গ্রেফতার করেছে। ৩০ মে রাত ৩টার দিকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। জব্দ করা হয়েছে আসমার মোবাইল ফোন ও পাসপোর্ট। পুলিশের কাছে খুনের বিষয়টি স্বীকার করেছে কাসেম। সোমবার গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যশোর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম।

হত্যাকাণ্ডের শিকার আসমা যশোর শহরের পুরাতন কসবা আরবপুর পাওয়ার হাউজপাড়া এলাকার শাহানুর ইসলামের তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী। অভিযুক্ত পরকীয়া প্রেমিক কাসেম শহরের পুরাতন কসবা গাজীরঘাট রোড এলাকার বশির মিয়ার ছেলে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আসমার সঙ্গে পরকীয়া ও অবৈধ সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছে কাসেম। পরকীয়ার কারণে ২০১৩ সালে আসমাকে তার স্বামী শাহানুর তালাক দেন। কিন্তু আসমা তার স্বামী শাহানুরের সঙ্গে আবার ঘর-সংসার করার সিদ্ধান্ত নিলে কাসেম তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে। একপর্যায়ে তাকে ভারতে নিয়ে হোটেলে হত্যা করে।

আসমা থাকতেন শহরতলির নওদাগ্রামে মঞ্জু নামে এক শিক্ষকের বাড়িতে। চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি আসমা ও তার খালা মনোয়ারা বেগম (৫৫) ভারতে চিকিৎসার জন্য যান। তারা সে দেশের উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁয়ে ‘শ্যামাপ্রসাদ লজ’ নামে একটি হোটেলে অবস্থান করেন। পরদিন সকালে হোটেলের তালাবদ্ধ কক্ষে আসমা ইসলামের লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় বনগাঁ থানায় একটি মামলা হয়। আসমার স্বজনরা বনগাঁ থানা থেকে কাগজপত্র সংগ্রহ করেন। তার ভাই আজিম উদ্দিন ৩০ জানুয়ারি হত্যাকাণ্ডে জড়িত অভিযোগে কাসেমের বিরুদ্ধে আদালতে পিটিশন দাখিল করেন। আদালতের নির্দেশে যশোর কোতোয়ালি থানায় মামলা নথিভুক্ত হয়। মামলাটি ১৪ মে পুলিশ সুপার জেলা গোয়েন্দা শাখাকে তদন্তের দায়িত্ব দেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পুলিশ পরিদর্শক সোমেন দাসের নেতৃত্বে এসআই মফিজুল ইসলামসহ ছদ্মবেশী একটি দল ৩০ মে রাত ৩টার দিকে ঢাকার মিরপুর পল্লবী বাউনিয়াবাদ বস্তি বাজার এলাকায় অভিযান চালায়। সেখান থেকে তারা কাসেমকে গ্রেফতার করেন। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আসমা ইসলামের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ঢাকার মানিকনগর এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত