মেহেরপুরে মুয়াজ্জিনকে কুপিয়ে হত্যা
jugantor
মেহেরপুরে মুয়াজ্জিনকে কুপিয়ে হত্যা

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মেহেরপুরে গাংনী উপজেলার সাহেবনগর মসজিদের মুয়াজ্জিন ও খাদেম ছহির উদ্দীনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার সকাল ৯টার দিকে মসজিদ ও গ্রামের গোরস্থানের কাছে তাকে হত্যা করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ছহির উদ্দীন সকালে মাদ্রাসায় কাজ করছিলেন। এ সময় মুখে কালো কাপড়ে ঢাকা দু’জন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে। দুর্বৃত্তরা মৃত্যু নিশ্চিত হয়ে লাশ ফেলে রেখে যায়। পরে এলাকাবাসী খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। ছহির উদ্দিনের তিন ছেলে ও দুই মেয়ে। এক মেয়ে গাংনী উপজেলা সমবায় অফিসের সহায়ক শাহিনা খাতুন জানান- তার তিন ভাই ও বাবা শ্রমজীবী। তাদের সঙ্গে গ্রামের কারো শত্রুতা নেই। বাবা মসজিদ ও মাদ্রাসায় মুয়াজ্জিন ও খাদেম হিসেবে বিনাশ্রম কাজ করেন।

একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে- ঘটনার সময় গ্রামের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী ঘটনা প্রত্যক্ষ করেছে। তাদের নিরাপত্তার অভাবে সূত্রটি ওই দুই শিক্ষার্থীর নাম প্রকাশ করেনি। গাংনী থানার ওসি ওবাইদুর রহমান জানান, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

মেহেরপুরে মুয়াজ্জিনকে কুপিয়ে হত্যা

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মেহেরপুরে গাংনী উপজেলার সাহেবনগর মসজিদের মুয়াজ্জিন ও খাদেম ছহির উদ্দীনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার সকাল ৯টার দিকে মসজিদ ও গ্রামের গোরস্থানের কাছে তাকে হত্যা করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ছহির উদ্দীন সকালে মাদ্রাসায় কাজ করছিলেন। এ সময় মুখে কালো কাপড়ে ঢাকা দু’জন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে। দুর্বৃত্তরা মৃত্যু নিশ্চিত হয়ে লাশ ফেলে রেখে যায়। পরে এলাকাবাসী খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। ছহির উদ্দিনের তিন ছেলে ও দুই মেয়ে। এক মেয়ে গাংনী উপজেলা সমবায় অফিসের সহায়ক শাহিনা খাতুন জানান- তার তিন ভাই ও বাবা শ্রমজীবী। তাদের সঙ্গে গ্রামের কারো শত্রুতা নেই। বাবা মসজিদ ও মাদ্রাসায় মুয়াজ্জিন ও খাদেম হিসেবে বিনাশ্রম কাজ করেন।

একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে- ঘটনার সময় গ্রামের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী ঘটনা প্রত্যক্ষ করেছে। তাদের নিরাপত্তার অভাবে সূত্রটি ওই দুই শিক্ষার্থীর নাম প্রকাশ করেনি। গাংনী থানার ওসি ওবাইদুর রহমান জানান, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।