চট্টগ্রামে দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যা
jugantor
চট্টগ্রামে দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যা

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নগরীর রিয়াজউদ্দিন বাজারে টাকা চুরির অভিযোগে সোমবার বিকেলে রমজান আলী রাসেল নামে এক দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। রাসেলের বাসা সদরঘাট থানার আইস ফ্যাক্টরি রোড এলাকায়। বাবার নাম আফাজ আলী। তার বাড়ি নরসিংদী জেলায়। এ ঘটনায় দোকান মালিকের ভাই আরমান হোসেন ও দোকান কর্মচারী ইউনুসকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। তবে দোকানের মালিক আরাফাত পালিয়ে গেছে।

পুলিশ জানায়, রিয়াজউদ্দিন বাজারের পানবাজার সংলগ্ন আরাফাত স্টোরে চাকরি করতেন রাসেল। সোমবার দোকানের পণ্যের হিসাব করা হচ্ছিল। সেখানে গুঁড়ো দুধের কার্টন কম পাওয়া যায়। দোকান মালিক আরাফাতের ধারণা দোকান কর্মচারী রমজান আলী রাসেল চুরি করে গুঁড়ো দুধ বিক্রি করে টাকা মেরে দিয়েছে। এ নিয়ে দুপুরে গুদামে সালিশ বসে। সদরঘাটের বাসা থেকে রাসেলের বাবা-মাকেও ডেকে আনা হয়। সালিশের একপর্যায়ে রাসেলকে লাঠি দিয়ে মারধর করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

কোতোয়ালি জোনের এসি নোবেল চাকমা যুগান্তরকে বলেন, দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জড়িত সবাইকে গ্রেফতার করা হবে। মালিককে গ্রেফতারেও অভিযান চলমান রয়েছে। এ ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি।

চট্টগ্রামে দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যা

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নগরীর রিয়াজউদ্দিন বাজারে টাকা চুরির অভিযোগে সোমবার বিকেলে রমজান আলী রাসেল নামে এক দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। রাসেলের বাসা সদরঘাট থানার আইস ফ্যাক্টরি রোড এলাকায়। বাবার নাম আফাজ আলী। তার বাড়ি নরসিংদী জেলায়। এ ঘটনায় দোকান মালিকের ভাই আরমান হোসেন ও দোকান কর্মচারী ইউনুসকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। তবে দোকানের মালিক আরাফাত পালিয়ে গেছে।

পুলিশ জানায়, রিয়াজউদ্দিন বাজারের পানবাজার সংলগ্ন আরাফাত স্টোরে চাকরি করতেন রাসেল। সোমবার দোকানের পণ্যের হিসাব করা হচ্ছিল। সেখানে গুঁড়ো দুধের কার্টন কম পাওয়া যায়। দোকান মালিক আরাফাতের ধারণা দোকান কর্মচারী রমজান আলী রাসেল চুরি করে গুঁড়ো দুধ বিক্রি করে টাকা মেরে দিয়েছে। এ নিয়ে দুপুরে গুদামে সালিশ বসে। সদরঘাটের বাসা থেকে রাসেলের বাবা-মাকেও ডেকে আনা হয়। সালিশের একপর্যায়ে রাসেলকে লাঠি দিয়ে মারধর করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

কোতোয়ালি জোনের এসি নোবেল চাকমা যুগান্তরকে বলেন, দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জড়িত সবাইকে গ্রেফতার করা হবে। মালিককে গ্রেফতারেও অভিযান চলমান রয়েছে। এ ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি।